তুরস্ক কোন বিদেশী হুকুমের পরোয়া করেনা: এরদোগান

তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়েব এরদোগান বলেছেন, তুরস্ক একটি স্বাধীন দেশ। তুরস্ক কখনো কারো হুকুমের পরোয়া করেনা। তুরস্ক একটি সার্বভৌম দেশ যারা আইনের শাসনে বিশ্বাসী।

শনিবার (১১ মে) ইস্তাম্বুলে বিরলিক চ্যারিটি ফাউন্ডেশনের ৩৯ তম ঐতিহ্যবাহী ইফতার মাহফিলে এরদোগান এসব কথা বলেন। ইস্তাম্বুলের মেয়র নির্বাচন সুপ্রিম কোর্ট কর্তৃক পুনরায় অনুষ্ঠিত হওয়ার রায় ঘোষণা হওয়ার পর পশ্চিমা দেশগুলো এরদোগান সরকারের সমালোচনা শুরু করে।

এর জবাবে এরদোগান বলেন, অস্ট্রিয়াতে দুই বছর পর পুনরায় রাষ্ট্রপতি নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। আপনার কাছে কি সেই সংবাদ পৌঁছেনি? এসময় এরদোগান ফিলিস্তিনের গাজায় অবস্থিত তুর্কি গণমাধ্যম আনাদোলু এজেন্সির অফিসে ইহুদি সন্ত্রাসবাদী ইসরাইলের হামলার প্রতিবাদ ও নিন্দা জ্ঞাপন করেন।

এরদোগান বলেন, ইসরাইলের জঘন্য হামলার প্রকাশ করায় আনাদোলুর অফিসে হামলা করেছে। তারা আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের এতো পরিমাণ সমর্থন পেয়েছে যে, তারা সংবাদমাধ্যমের অফিসে হামলার দ্বিধা করেনি। প্রসঙ্গত; গত শনিবার ইসরাইলী সন্ত্রাসীরা বিমান হামলার মাধ্যমে গাজার ৭টি ভবন পুরোপুরি ধ্বংস করে দেয়।

যার মধ্যে তুর্কি গণমাধ্যম আনাদোলু এজেন্সির অফিসও ছিল। এছাড়াও ইসরাইলী সন্ত্রাসীরা অসংখ্য সংবাদ কর্মীকে আহত, নিহত ও গ্রেফতার করার মত ধৃষ্টতা দেখিয়েছে। উল্লেখ্য, গত ৩১ মার্চ তুরস্কে স্থানীয় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। ফলাফল ঘোষণা করার পর ক্ষমতাসীন দল একে পার্টি নির্বাচনের গ্রহণযোগ্যতা নিয়ে চরম অভিযোগ তোলে। তাদের দাবী উক্ত নির্বাচন

পরিচালনায় সরকারি কর্মকর্তার বিপরীতে বেসরকারি কর্মকর্তা নিয়োগ এবং একে পার্টির ভোট সংখ্যা বিরোধী দলের খাতায় উল্লেখ্য সহ নানান অনিয়ম করা হয়েছে। পরে দেশটির সুপ্রিম কোর্ট অনিয়মের বিষয়টি তদন্ত করে আগামী ২৩ জুলাই পুনঃ নির্বাচনের ঘোষণা দেয়।

মাটির নিচের গোপন কারাগারে ২৪ বছর পরে খুঁজে পাওয়া গেল সুদানের সাবেক মন্ত্রীকে!

আফ্রিকান দেশ সুদানের সাবেক প্রতিরক্ষামন্ত্রী কর্নেল ইব্রাহিম ছামসাদিনের একটি হৃদয়বিদারক ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। সেখানে উল্লেখ করা হচ্ছে, স্বৈরশাসনের প্রতিবাদ করায় প্রায় ২৪ বছর আগে জেলে পাঠানো ইব্রাহিম ছামসাদিনকে সুদানের রাজধানী খার্তুমের একটি মাটির নিচের গোপন কারাগারে খুঁজে পাওয়া গেছে।

ছবিটিতে দেখা যায়, রোগা-মলিন চেহারায় অপুষ্টিতে ভোগা একজন বৃদ্ধা খালি শরীরে বালির উপর বসে আছেন। তার পরনে একটি জীর্ণশীর্ণ লুঙ্গি। অসহায় দৃষ্টিতে তিনি তাকিয়ে আছেন ক্যামেরার দিকে। ছবিটিতে দেখা যায়, অন্ধাকারে আলো ফেলে ছবি তোলা হয়েছে। সাবেক এই মন্ত্রীকে আটকে রাখা স্থানটি একটি গুহা।

সেই সাথে ইব্রাহিম ছামসাদিনের ঘুমন্ত অবস্থার ছবিও প্রকাশ পায়। সেখানে দেখা যায়, এক টুকরো কাঠের উপর মাথা রেখে বালির উপর শুয়ে আছেন সুদানের সাবেক প্রতিরক্ষামন্ত্রী। জানা যায়, সুদানের স্বৈরশাসক ওমর আল-বশির তার অবৈধ শাসনের প্রতিবাদ করায় ১৯৯৫ সালে দেশটির তৎকালীন প্রতিরক্ষা মন্ত্রী ইব্রাহিম ছামসাদিনকে জেলে পাঠান।

শুধু তাই নয়, ২০০৮ সালে সুদান সরকার রাষ্ট্রীয়ভাবে ঘোষণা করে যে, সাবেক প্রতিরক্ষা মন্ত্রী ইব্রাহিম ছামসাদিন বিমান দুর্ঘটনায় মারা গেছেন। আফ্রিকাভিত্তিক একাধিক সংবাদ মাধ্যমের তথ্য অনুসারে, সম্প্রতি সুদানের রাজধানী খার্তুমের একটি মসজিদের আন্ডারগ্রাউন্ডে একটি গোপন কারাগারের খোঁজ পাওয়া যায়।

সেখানে ইব্রাহিম ছামসাদিনকে খুঁজে পাওয়া যায়। ইব্রাহিম ছামসাদিনের বর্তমান অবস্থার সাথে সাথে তার মন্ত্রী থাকাকালীন একটি ছবিও প্রকাশ করে আফ্রিকান গণমাধ্যমগুলো। উল্লেখ্য, দেশটির সাবেক স্বৈরশাসক ওমর আল-বশির নিজেও বর্তমানে জেলখানায় আছেন।