৫৩ টি মুসলিম দেশের প্রায় ৯৫ হাজার এতিম শিশুদের দায়িক্ত নিচ্ছেন এরদোগান!

বিশ্বের সর্বমোট ৫৩ টি ইসলামী দেশে মাতাপিতা হারানো অন্ততপক্ষে ৯৫ হাজার এতিম শিশুকে মাসিক অর্থ-সহায়তা করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে তুরস্ক।

এ সময় তিনি বলেন, ‘একটি শিশুর পিছনে প্রতি মাসে কমপক্ষে ২১ মার্কিন ডলার খরচ করার পরিকল্পনা গ্রহণ করেছি আমরা। তুর্কি জনগণের পক্ষ থেকে আমাদের এই অর্থ-সহায়তা এসব শিশুদের উন্নত জীবন গঠন ও পড়ালেখায় ব্যয় করা হবে।’

এ ব্যাপারে গত ২৩ এপ্রিল মঙ্গলবার তুর্কি রাষ্ট্রীয় ত্রাণ সংস্থার শিশু ও এতিম সেক্টরের প্রধান রাশেদ বাশার বলেন, ‘২০০৭ সালের পর থেকে যুদ্ধবিগ্রহ, দুর্যোগ এবং দুর্ঘটনার কারণে যেসব শিশু পিতামাতা ও আপন পরিবারকে হারিয়েছে তাদেরকে আমরা আর্থিকভাবে সহায়তা ও সমর্থন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি।’

এ সময় তিনি আরও বলেন, ‘ত্রাণ সংস্থার আর্থিক এই অনুদান ইসলামী বিশ্বের অন্ততপক্ষে ৫৩ টি দেশে পৌঁছানো হবে-ফিলিস্তিন,

সোমালিয়া, নাইজেরিয়া, ইন্দোনেশিয়া, ফিলিপাইন, থাইল্যান্ড এবং তুরস্কে আশ্রিত সিরিয়ার এতিম শিশুসহ মোট ৫৩ টি দেশের এতিম-অনাথ শিশুরা এই মেগা সহায়তার অন্তর্ভুক্ত থাকবে।’

আরো পড়ুন: রমজান উপলক্ষে আরব আমিরাতে পণ্যের মূল্যছাড়ের প্রতিযোগিতা

অধিকাংশ নিত্যখাদ্য পণ্যের দোকান বা বড় বড় সুপার মার্কেটগুলোতে লাগানো হয়েছে বিশেষ মূল্যছাড় সম্পর্কিত নানা রকম পোস্টার। এমনকি মসজিদগুলোতে নামাজ আদায় শেষে মুসল্লিরা যাওয়ার সময় তাদের হাতেও ধরিয়ে দেয়া হচ্ছে এসব পোস্টার।

আসন্য রমজানুল মুবারক মাসকে স্বাগত জানিয়ে এবং রোজাদারদের সম্মানে আগেভাগেই নিত্যপণ্যের বিশেষ মূল্যছাড় ঘোষণা করেছে আরব আমিরাতের ব্যবসায়ীরা।

আবার বাসা-বাড়ির দরজায় বা গেটেও পোস্টার বিতরণ করতে দেখা যায়। যেন মহান আল্লাহ তায়ালার নৈকট্য লাভের অপূর্ব সুযোগ হারাতে চাচ্ছেন না তারা। ফলে রমজান আসার আগেই রোজাদারদের প্রতি ব্যবসায়ীদের আগাম এই অপার শ্রদ্ধাবোধের বহিঃপ্রকাশ।