নিশ্চয়ই তোমার জন্য হে এরদোগান কিয়ামত পর্যন্ত একটি প্রতিদান আছে : বিশ্বনন্দিত আলেম শায়েখ স্বাবূনী

হাজিয়া সোফিয়া মসজিদকে পুনরায় মসজিদ হিসেবে খুলে দেওয়ার সিদ্ধান্তকে অভিনন্দন জানিয়েছেন বিশ্ববরেণ্য আলেম শাইখ হযরত স্ববূনী। তিনি তুরস্কের রাষ্ট্রপতি রজব তৈয়‍্যব এরদোগানকে লক্ষ্য করে বলেন যে এই পবিত্র কাজের জন্য কিয়ামতের দিন পর্যন্ত তাঁর জন্য একটি প্রতিদান রয়েছে। এসংবাদ জানিয়েছে ওকালাতু আনবা’য়ি তুরকিয়া।

শতশত আলেম ওলামা ও মুসলিম বিশ্বের সাথে সাথে তুরস্কের হাজিয়া সোফিয়া মসজিদ সংক্রান্ত রায়কে ভূয়সি প্রসংশা করেছেন সিরিয়ার আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন বিদগ্ধ আলেম শায়েখ হযরত স্বাবূনী।

শায়েখ এবিষয়ে তাঁর একটি বক্তব্যে বলেন, ” আমাদের মুসলিম বিশ্বে উত্তম বাতাস ও বরকতের বাতাস বয়ে চলেছে যেটা আমরা বুঝতে পারছি, যেটা তার মনোরম প্রাণশক্তি ও তার রাষ্ট্রপতি রজব তৈয়‍্যব এরদোগান হাফিয্বাহুল্লাহ ওয়া র’য়াহু এঁর আত্মার সৌন্দর্যের সাথে খিলাফতে উসমানীয়ার সদর থেকে আমাদের পূর্বে ও আমাদের পশ্চিমে (সর্বত্র) ছড়িয়ে পড়ছে।”

তিনি তুরস্কের রাষ্ট্রপতি রজব তৈয়‍্যব এরদোগানকে লক্ষ্য করে বলেন, ” নিশ্চয় তোমার জন্য হে এরদোগান! কিয়ামতের দিন পর্যন্ত একটি প্রতিদান রয়েছে। সেদিন ওজুর চিহ্ন দ্বারা কপাল উজ্বলকারীরা তোমাকে দুয়া ও প্রসংশার সাথে স্মরণ করবে।”

তিনি অবশেষে বলেন, ” আল্লাহর পক্ষ থেকে এই অনুকম্পা আমাদের জন্য আনন্দময় হয়ে উঠুক। আর আল্লাহর শত্রুরা ব্যর্থ হয়ে গেছে ও তাদের চেষ্টা ব্যর্থ হয়েছে গেয়ে আর সকল প্রসংশা সকল জগতের প্রভুর জন্য।”

উল্লেখ্যঃ ১৪৫৩ সালে সুলতান মুহাম্মাদ আল ফাতিহ রহঃ কনস্ট্যান্টিনোপল বিজয় করে তিনি এর নাম রাখেন ইসলামবুল। অতঃপর তিনি আয়া সোফিয়া কিনে মসজিদ হিসেবে ওয়াকফ করে দেন।

আরও সংবাদ

এবার আল-আকসা উদ্ধারের ঘোষণা এরদোগানের

তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়েব এরদোগান আয়া সোফিয়াকে আবারো মসজিদে পরিণত করার পর এবার ইসরাইলের কাছ থেকে “আল-আকসা মসজিদকে মুক্ত করার” প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন।

গত শুক্রবার তিনি এ ঘোষণা দিয়েছেন বলে জানিয়েছে দ্য জেরুসালেম পোস্ট।

গীর্জা থাকার পর আয়া সোফিয়াকে ১৪৫৩ সালে মসজিদে রুপান্তরিত করেন উসমানিয় সুলতান মেহমুদ আল ফাতিহ। পরে ১৯৩৪ সালে তা যাদুঘরে রূপান্তরিত হয়েছিল। আয়া সোফিয়াকে আবারো মসজিদে রুপান্তরের ঘোষণা দেয়া হয়।

আয়া সোফিয়াকে মসজিদে পরিণত করার ঘোষণার পর আল-আকসা মসজিদকে মুক্ত করার বার্তা দেয়া হয়েছে তুর্কি প্রেসিডেন্টের ওয়েবসাইটে।

বলা হয়েছে, আয়া সোফিয়ার পুনরুত্থান হলো বিশ্বজুড়ে মুসলমানদের আবারো কতৃত্বের প্রথম পদক্ষেপ…আয়া সোফিয়ার এই উত্থান নিপীড়িত, শোষিত মুসলমানদের আশার আলো।

ভাষণটির আরবি অংশে বলা হয়েছে, আয়া সোফিয়াকে মসজিদে পরিণত করা আল-আকসা মুক্তির অংশ। জেরুজালেমের পুরানো শহর যেখানে আল-আকসা মসজিদ রয়েছে তা নিয়ন্ত্রণ থেকে ইসরাইলকে বিতাড়িত করার ইঙ্গিত দেয়া হয়েছে।

এরদোগান ইসরাইলের চরম সমালোচক হিসেবেই পরিচিত।