মাতৃভূমি ফিলিস্তিনকে মুক্ত করার লক্ষ্যে হামাস প্রতিষ্ঠিত হয়েছে

মার্কিন সরকার ফিলিস্তিনের ইসলামি প্রতিরোধ আন্দোলন হামাসের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট দুই ব্যক্তিকে আটক করার যে দাবি করেছে তা সরাসরি প্রত্যাখ্যান করেছে হামাস। ফিলিস্তিনের বার্তা সংস্থা ‘শাহাব’ হামাসের এক বিবৃতির উদ্ধৃতি দিয়ে এ তথ্য জানিয়েছে।

বিবৃতিতে বলা হয়েছে, আমেরিকায় তৎপর ‘বুগালুবুয়া’ আন্দোলন বা ওই আন্দোলনের কোনো ব্যক্তির সঙ্গে হামাসের বিন্দুমাত্র সম্পর্ক নেই। আমেরিকা বুগালুবুয়ার সঙ্গে হামাসের সম্পর্ক থাকার যে দাবি করছে তা নিন্দনীয় ও ঘৃণ্য অপচেষ্টা মাত্র।

বিবৃতিতে হামাস বলেছে, ইহুদীবাদী ইসরাইলের আবেদনে সাড়া দিয়ে ওয়াশিংটন হামাসের ভাবমর্যাদা ক্ষুণ্ন করার জন্য এমন অভিযোগ উত্থাপন করেছে।

বিবৃতিতে আরো বলা হয়, ফিলিস্তিনি মাতৃভূমিকে দখলদার ইহুদীবাদীদের হাত থেকে মুক্ত করার লক্ষ্যে হামাস প্রতিষ্ঠিত হয়েছে এবং এই সংগঠনের তৎপরতা ফিলিস্তিনি ভূখণ্ডে সীমাবদ্ধ। হামাস অন্য কোনো দেশের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে কোনো অবস্থায়ই হস্তক্ষেপ করে না।

আমেরিকার প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের প্রশাসন সম্প্রতি ঘোষণা করেছে, তারা সেদেশের মিনিয়াপোলিস শহর থেকে হামাসের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট দুই ব্যক্তিকে আটক করেছে।

মার্কিন বিচার মন্ত্রণালয় দাবি করেছে, আটক মাইকেল রবার্ট (৩০) ও বেনিয়ামিন তিত্‌র (২২) বুগালুবুয়া আন্দোলনের সদস্য। এই দুই ব্যক্তি ট্রাম্প প্রশাসনের ক্ষতি করার জন্য হামাসে যোগ দিতে এবং ফিলিস্তিনি এই সংগঠনকে অর্থ ও অস্ত্র সরবরাহ করতে চেয়েছিল বলে ওই মন্ত্রণালয় দাবি করেছে।

মার্কিন সরকার বুগালুবুয়া আন্দোলনকে একটি বিপজ্জনক গোষ্ঠী হিসেবে চিহ্নিত করে কালো তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করেছে। এই গোষ্ঠীর সদস্যরা আমেরিকায় বর্ণবাদবিরোধী আন্দোলনের সুযোগে নাশকতা চালাচ্ছে বলে ওয়াশিংটন অভিযোগ করছে।

উল্লেখ্য, বুগালু বোইস আমেরিকার একটি চরমপন্থী গোষ্ঠী যাদের অবস্থান মার্কিন পাবলিক প্রতিষ্ঠান এবং সরকারের বিরুদ্ধে।

তাদের দাবী, তারা আমেরিকায় দ্বিতীয় গৃহযুদ্ধের প্রস্তুতি নিচ্ছে যার নামকরণ করেছে “বুগালু”। মার্কিন পুলিশ কড়মকর্তার নির্যাতনে জর্জ ফ্লয়েড নামে এক কৃষ্ণাঙ্গের মৃত্যু হলে এই গ্রুপের সদস্যরা মিনিয়াপলিসে সশস্ত্র বিক্ষোভ করে।

আরো পড়ুন: বিশ্বে ১ কোটি ২০ লাখ ইহুদি ঐক্যবদ্ধ আর ১৩০ কোটি মুসলমান বিভক্ত : ইমরান খান

বিশ্ব মুসলিমদের ঐক্যবদ্ধ জরুরি দাবি করে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান বলেছেন, ‘প্রভাবশালী, শক্তিশালী ও ঐক্যবদ্ধ থাকায় মাত্র এক কোটি ২০ লাখ ইহুদিদের বিরুদ্ধে পশ্চিমা বিশ্ব টু শব্দটি করছে না।

অথচ ১৩০ কোটি মুসলমানকে বিশ্বের সর্বত্র নির্যাতনের শিকার হতে হচ্ছে।’ মঙ্গলবার আঞ্চলিক শান্তি ও নিরাপত্তা বিষয়ক মালয়েশীয় থিংকট্যাংকদের একটি অধিবেশনে তিনি এসব কথা বলেন। বিভক্তির কারণেই মুসলমানরা সর্বত্র নির্যাতিত হচ্ছে বলে মন্তব্য করে ইমরান খান বলেন,

‘লড়াই করতে মুসলিম উম্মাহ ঐক্যবদ্ধ হোক, সেটা আমরা চাই না, কিন্তু অন্যান্য সম্প্রদায়ের মতো তারা নিজেদের স্বার্থ রক্ষা করুক।’ পাক প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘লিবিয়া, সোমালিয়া, সিরিয়া, ইরাক ও আফগানিস্তানসহ সর্বত্র মুসলমানদের বিপর্যয়ের কাহিনী।

এর কারণ হচ্ছে- আমাদের কোনও ঐক্য নেই। আমাদের মধ্যে বিভক্তির কোনও শেষ নেই।’ এমনকি অধিকৃত কাশ্মিরে মানবাধিকার লঙ্ঘনের বিরুদ্ধে ঐকমত্যে পৌঁছাতে পারেনি ইসলামিক সহযোগিতা সংস্থার (ওআইসি) মুসলমান দেশগুলো বলেও জানান ইমরান খান।

দুইদিনের মালয়েশিয়া সফরের শেষ দিকে একটি কনফারেন্সে তিনি আরও বলেন,’ মুসলমানদের বিরুদ্ধে নিপীড়নের জবাব হচ্ছে মুসলিম দেশগুলোর ঐকবদ্ধ হওয়া। কাজেই মিয়ানমার ও কাশ্মিরে যা ঘটছে, যেখানে কেবল ধর্মের কারণে মুসলমানদের নির্যাতিত হতে হচ্ছে, এমন বিষয়গুলোতে তাদের ঐক্যবদ্ধ হতে হবে।’

পাকিস্তান গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকার কারণে ইরান ও সৌদি আরবের মধ্যে সাম্প্রতিক সাংঘর্ষিক অবস্থা কেটে গেছে জানানা ইমরান খান।

আরো পড়ুন- চুমু খেয়ে কুরআন অবমাননার প্রতিবাদ জানালেন সুইডেনের অমুসলিম নারী

চুমু খেয়ে কুরআনুল কারীম অবমাননার প্রতিবাদে জানালেন অমুসলিম এক সুইডিশ নারী। চুমু খাওয়ার দৃশ্যটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে।

ফেসবুক ও অন্যান্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রকাশিত ভিডিওতে দেখা যায় সুইডেনের মালমো শহরে সংঘটিত কুরআনুল কারীম পোড়ানোর প্রতিবাদে ওই অমুসলিম নারী কুরআনে চুমু খান। আর বলেন, ‘সুইডিশ নারী মালমো শহরের মুসলিমদের সঙ্গে একত্বতা ঘোষণা করেছে।’

ফেসবুক পেজে বলা হয়, ওই নারী বলছে, আমি জানি না বইটি কি সম্পর্কে। কিন্তু মানবতা ও অনুকম্পার জন্য আমি তোমাদের সঙ্গে একাত্বতা ঘোষণা করছি। বইটি যেহেতু তোমাদের কাছে গুরুত্ব, তাই আমার কাছেও তা গুরুত্বপূর্ণ। বইটি চুমু দিয়ে আমি গর্বিত।

সুইডিশ নারী আরো বলেন, ডেনিশ ব্যক্তি সুইডেনে যা করেছে তাতে আমরা সন্তুষ্ট নই। সুইডেনের পত্রিকা নারীটির ছবি প্রকাশ করলে তা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সবার দৃষ্টি কাড়ে।

বিশ্বে ১ কোটি ২০ লাখ ইহুদি ঐক্যবদ্ধ আর ১৩০ কোটি মুসলমান বিভক্ত : ইমরান খান