ফিলিস্তিন নিয়ে ট্রাম্প-নেতানিয়াহুর ষড়যন্ত্র কখনোই বাস্তবায়িত হবে না: আব্বাস

ফিলিস্তিন-ইসরাইল সংকট সমাধানের লক্ষ্যে শান্তি প্রতিষ্ঠায় ‘ডিল অব দ্য সেঞ্চুরি’ ‘শতাব্দীর সেরা চুক্তি’ নামের যে প্রস্তাব দিয়েছেন মা’র্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। ইরানের পর এই পরিকল্পনাকে ‘ষড়’য’ন্ত্র’ আখ্যা দিয়ে সেটি প্রত্যাখ্যান করেছেন ফিলিস্তিনের প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাস।

প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাস বলেছেন, জেরুজালেম বিক্রির জন্য নয়। এটি আমাদের অধিকার। আর এটা নিয়ে দর কষাকষির কোনো সুযোগ নেই। ট্রাম্প ও নেতানিয়াহুর ষড়’য’ন্ত্র কখনোই বাস্তবায়িত হবে না।

তিনি আরো বলেন, যদি জেরুজালেম না থাকে? আমরা কি জেরুজালেম ছাড়া কোনো রাষ্ট্র মেনে নেব? যে কোনো ফিলিস্তিনি শিশু বা আরব বা মুসলিম বা খ্রিস্টানের জন্যই এটা মেনে নেয়া অসম্ভব। এ কারণে শুরু থেকেই আমরা তাদের ‘না’ বলে এসেছি।

এদিকে ট্রাম্পের মধ্যপ্রাচ্য শান্তি পরিকল্পনাকে শতাব্দীর সবচেয়ে বড় বিশ্বাসঘাতকতা বলে আখ্যা দিয়েছে ই’রান। এ পরিকল্পনা প্রতিহতের জন্য সারা বিশ্বের মুসলিমদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে তারা।

পৃথিবীর সবচেয়ে পবিত্র ও শৃঙ্খলা পরায়ণ ধর্ম হলো ইসলাম: শাহরুখ খান

দেশজুড়ে চলমান পরিস্থিতি ও নিজ বাড়িতে ধর্মীয় বিষয় নিয়ে চর্চার পরিপ্রেক্ষিতে করা এক প্রশ্নের জবাবে অভূতপূর্ব উত্তর দিলেন বলিউড অভিনেতা শাহরুখ খান। এক রিয়্যালিটি শোতে তাঁকে জিজ্ঞাসা করে হয়, বাড়িতে ধর্মীয় বিষয় নিয়ে আলোচনা হয় নাকি।

সেইখানেই শাহরুখ সোজাসাপটা জবাব দেন, ”আজ পর্যন্ত আমরা হিন্দু-মুসলিম নিয়ে কোনও কথাই বলিনি। আমার বউ হিন্দু, আমি নিজে মুসলমান। আর আমাদের বাচ্চারা ভারতীয়।” আমি নিজে মুসলমান, আমার বউ হিন্দু, আর আমাদের সন্তানরা ভারতীয়।

শাহরুখ খানের মন্তব্যের পরেই রীতিমতো করতালিতে ফেটে পড়েন উচ্ছসিত জনতা। এদিন তিনি বলেন, স্কুলে ভর্তির সময়ে ফর্মে ধর্মীয় পরিচয় উল্লেখ করার ব্যাপারে মেয়ে আমাকে জিজ্ঞেস করলে আমার মেয়ে সুহানাকে আমি বলেছিলাম, আমরা ভারতীয়-এর বাইরে কোনও ধর্ম নেই আমাদের।

নিজের ধর্ম নিয়ে কথা বলতে গিয়ে শাহরুখ বলেছেন, ‘আমি খুব বেশি ধার্মিক এই কারণে নিজেকে দাবি করব না, কারণ আমি পাঁচ ওয়াক্ত নামাজি নই। কিন্তু আমি মুসলিম। আমি ইসমাম ধর্মে বিশ্বাস করি এবং আমি মনে করি এটা একটা ভালো ধর্ম যাঁর মধ্যে নিয়মানুবর্তিতা রয়েছে’।

তিনি আরও জানান, ”আমি কিন্তু কোনও নির্দিষ্ট ধর্মের উপর বিশ্বাসী নই, প্রত্যেকদিন নামাজ পড়তে হবে ওইসব আমি করিনা। কিন্তু ইসলামকে মানি, শ্রদ্ধা করি। ইসলামের রীতি-নীতিকে মানি। ইসলাম খুবই পবিত্র ও শৃঙ্খলা পরায়ণ ধর্ম।”