“পাকিস্তান কখনোই ইহুদিবাদী ইসরাইলকে স্বীকৃতি দেবে না”

পাকিস্তানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র মোহাম্মাদ ফয়সাল বলেছেন, তার দেশ কখনোই ইহুদিবাদী ইসরাইলকে স্বীকৃতি দেবে না। তিনি আরও বলেন, ইহুদিবাদী ইসরাইলের সঙ্গে সম্পর্ক প্রতিষ্ঠার বিষয়ে গোপন যোগাযোগের কোনো ঘটে নি।

কারণ পাকিস্তান ইসরাইলকে কখনোই স্বীকৃতি দেবে না। তিনি জানান, পাকিস্তান বায়তুল মুকাদ্দাসকে রাজধানী করে স্বাধীন ফিলিস্তিন রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠার পক্ষে। এ সময় তিনি ফিলিস্তিনের পশ্চিম তীরের বিশাল অংশকে ইসরাইলের অংশ করার পরিকল্পনা তীব্র নিন্দা জানান।

পাকিস্তানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র বলেন, ফিলিস্তিনের মজলুম জনগণের প্রতি ইসলামাবাদের পূর্ণ সমর্থন রয়েছে এবং ইসলামাবাদ ফিলিস্তিনিদের প্রতি সংহতি প্রকাশ করছে।u

ইসরাইলের যুদ্ধবাজ প্রধানমন্ত্রী নেতানিয়াহুর নতুন আগ্রাসী ঘোষণার পর মুসলিম দেশগুলো ব্যাপক প্রতিবাদমুখর হয়ে উঠেছে। ইসরাইলের যুদ্ধবাজ প্রধানমন্ত্রী নেতানিয়াহুর নতুন আগ্রাসী ঘোষণার পর মুসলিম দেশগুলো ব্যাপক প্রতিবাদমুখর হয়ে উঠেছে।

কাশ্মীর ইস্যু: ভারতের সঙ্গে আকস্মিক যু’দ্ধের আশঙ্কা পাকিস্তানের

পাকিস্তান হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে বলেছে, কাশ্মীর পরিস্থিতি নিয়ে আকস্মিকভাবে নয়াদিল্লি এবং ইসলামাবাদের মধ্যে যু’দ্ধ শুরু হয়ে যেতে পারে। পরিস্থিতি স্বাভাবিক করার জন্য পাকিস্তান গোলযোগপূর্ণ এ অঞ্চলে সফর করার জন্য জাতিসংঘের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে।

গতকাল (বুধবার) জেনেভায় জাতিসংঘ মানবাধিকার পরিষদের বৈঠকের অবকাশে পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মেহমুদ কোরেশি সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপের সময় এ হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেন।

তিনি বলেন, “ভারত এবং পাকিস্তান দু দেশই যুদ্ধের পরিণতি জানে তবে আপনারা কেউই এ ধরণের আকস্মিক যুদ্ধের আশঙ্কা উড়িয়ে দিতে পারেন নাা। যদি এ পরিস্থিতি অব্যাহত থাকে তাহলে যেকোনো কিছুই সম্ভব।”

পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মেহমুদ কোরেশি
পাক পররাষ্ট্রমন্ত্রী কাশ্মীর পরিস্থিতিতে সেখানে জাতিসংঘ মানবাধিকার পরিষদের তদন্তের আহ্বান জানিয়ে সাংবাদিকদের বলেন, তিনি জাতিসংঘ মানবাধিকার পরিষদের

হাইকমিশনার মিশেল ব্যাচেলেটকে ভারত এবং পাকিস্তান নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীর সফরের আহবান জানিয়েছেন। তিনি বলেন, তার কাশ্মীরের দুই অংশের সফর করে দেখা উচিত যাতে সেখানকার আসল সত্য বিশ্ববাসী জানতে পারে।

শাহ মেহমুদ কোরেশি দাবি করেন, মিশেল ব্যাচেলেট তাকে বলেছেন যে, তিনি কাশ্মীর সফরের ব্যাপারে আগ্রহী। শাহ মেহমুদ কোরেশি দাবি করেন, মিশেল ব্যাচেলেট তাকে বলেছেন যে, তিনি কাশ্মীর সফরের ব্যাপারে আগ্রহী।