অভিমানে ক্রিকেটকে বিদায় জানালেন আমির

অভিমান করে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে বিদায় নিলেন পাকিস্তানের পেসার মোহাম্মদ আমির। নিউজিল্যান্ড সফরে পাকিস্তান দলে জায়গা না হওয়ায় মূলত এ সিদ্ধান্ত নেন তিনি। এর আগে দল থেকে বাদ পড়ে অনেকটা প্রকাশ্যেই হতাশার কথা জানিয়েছিলেন ২৮ বছর বয়সী এই পেসার।

পাকিস্তানের একটি টিভি চ্যানেলকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে আমির জানান, ‘এই টিম ম্যানেজমেন্টের অধীনে আর খেলতে চাই না। তারা মানসিকভাবে আমাকে আঘাত করেছে।’

বুধবার (১৬ ডিসেম্বর) রাতে লঙ্কান প্রিমিয়ার লিগের ফাইনাল খেলেছেন মোহাম্মদ আমির। শ্রীলঙ্কা থেকেই পাকিস্তানের টিভি চ্যানেলকে অবসরের সিদ্ধান্তের কথা জানান।

আমির অভিযোগ করে বলেন, অফ ফর্মের কারণে প্রধান কোচ মিসবাহ উল হক, বোলিং কোচ ওয়াকার ইউনুসরা তাকে কটু কথা শুনিয়েছেন। পারফরমেন্সের কারণে দলের কোচ রীতিমতো উপহাস করেছেন।’

২০১৯ সালে টেস্ট ক্রিকেট থেকে অবসরের সিদ্ধান্ত নেন আমির। সে সময় পাকিস্তানের সাবেকদের রোষানলে পড়েন তিনি। কঠোর সমালোচনা করেছিলেন কোচ মিসবাহ উল হকও। হারান পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (পিসিবি) কেন্দ্রীয় চুক্তিও।

২০০৯ সালে ১৭ বছর বয়সে টেস্ট অভিষেক হয় মোহাম্মদ আমিরের। গতি আর সুইংয়ের সমন্বয়ে বিশ্ব ক্রিকেটের নজর কাড়েন দ্রুতই। এরপর ফিক্সিং করে পাঁচ বছরের জন্য নিষিদ্ধ হন। নিষেধাজ্ঞা শেষে ফিরে ২০১৭ সালে পাকিস্তানের আইসিসি চ্যাম্পিয়নস ট্রফি জয়ে বড় ভূমিকা রাখেন আমির।

৩৬ টেস্টে ১১৯ উইকেট নিয়েছেন মোহাম্মদ আমির। এ ছাড়া ৬১ ওয়ানডেতে ৮১ ও ৫০ টি-টোয়েন্টি খেলে আমিরের শিকার ৫৯ উইকেট।