আমিরাতের মধ্যস্থতায় সুদানি নেতা ও মোসাদের গোপন বৈঠক

সংযুক্ত আরব আমিরাতের মধ্যস্থতায় গোপন একটি বৈঠক করেছে সুদানের বিদ্রোহী নেতা ও ইসরাইলের গোয়েন্দা সংস্থা মোসাদ প্রধান। আরবি ভাষার নিউজ পোর্টাল দ্য নিউ আরবকে বিশেষ একটি সূত্র গোপন বৈঠকটির কথা নিশ্চিত করেছেন। এ ছাড়া টাইমস অব ইসরাইল এবং মিডলইস্ট আই গোপন বৈঠকটি নিয়ে সংবাদ প্রকাশ করেছে।

জানা যায়, মোসাদ প্রধান ইয়োসি কোহেনের সাথে বৈঠকের জন্য সুদানের আধাসামরিক বাহিনী র্যাপিড সাপোর্ট ফোর্সেসÑ আরএসএফের কমান্ডার মোহাম্মাদ দাগালো ওরফে হেমদতি ব্যক্তিগত একটি বিমানে করে অজ্ঞাত একটি স্থানের উদ্দেশ্যে উড়াল দেন। তবে বৈঠকটি কবে নাগাদ অনুষ্ঠিত হয়েছে তা জানাতে রাজি হননি সূত্রটি। তাতে খার্তুম ও তেল আবিবের মধ্যে সম্পর্ক স্বাভাবিক করা, সীমান্ত অঞ্চলে অর্থনীতি কার্যক্রমে পারস্পরিক সহযোগিতার পরিকল্পনা নিয়ে আলোচনা হয়।

সূত্র জানিয়েছে, গোপন ওই বৈঠকে সংযুক্ত আরব আমিরাতের নিরাপত্তা উপদেষ্টা তাহনুন বিন জায়েদ, আরব আমিরাতের ক্রাউন প্রিন্সের ভাই মোহাম্মদ বিন জায়েদ আল-নাহিয়ানসহ দেশটির সরকারের বেশ কয়েকজন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা উপস্থিত ছিলেন।

তবে মোসাদ প্রধান কোহেন ও আরএসএফের কমান্ডার ওরফে হেমদতি মধ্যকার কোনো ধরনের বৈঠকের কথা অস্বীকার করেছে সুদানের সার্বভৌমত্ব কাউন্সিল।

অবশ্য, কাউন্সিলের মুখপাত্র মোহামেদ আলফাকি সুলেইমান জানিয়েছেন, ইসরাইলের সাথে সম্পর্ক পুনর্বিবেচনা করে দেখার জন্য পার্লামেন্টকে নির্দেশ দিয়েছে দেশটির অন্তর্বর্তীকালীন সরকার।

সুলেইমান নিউ আরবকে বলেছেন, গত ফেব্রুয়ারিতে সুদানের মিলিটারি প্রধান জেনারেল আবদেল ফাত্তাহ আল-বুরহান এবং ইসরাইলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহুর মধ্যে বিতর্কিত বৈঠকের পর অন্তর্বর্তীকালীন সরকার এই পদক্ষেপ নেয়।

নেতানিয়াহুর সাথে ওই বৈঠকে বুরহান ইসরাইলের সাথে শান্তি চুক্তিতে সই না করলেও ইসরাইলি বিমানগুলোকে টানজিট নিতে সুদানের আকাশ ব্যবহারের অনুমতি দেয়া হয়। বৈঠকটি নিয়ে ইসরাইলের প্রধানমন্ত্রীর অফিস বলেছিল, এটি দুই দেশের সম্পর্ক স্বাভাবিক করার প্রথম ধাপ। টাইমস অব ইসরাইল ও মিডলইস্ট আই