চায়ে চিনি কম হওয়ায় স্ত্রীকে গলাকেটে হত্যা!

চায়ে চিনি কম দেওয়ায় তিনি অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রীর গলা কেটে খুন করেছেন বাবলু কুমার নামের এক ব্যক্তি।

নৃশংস এই ঘটনাটি ভারতের উত্তরপ্রদেশের লখিমপুর জেলার বারবার অঞ্চলের। অভিযুক্ত পলাতক। তার সন্ধানে তল্লাশি চালানো হচ্ছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

অভিযুক্ত ব্যক্তির নাম বাবলু কুমার। তার বিয়ে হয় ১২ বছর আগে। তাদের তিন সন্তান আছে। মা রেণুর চিৎকারে তাদের ঘুম ভেঙে যায়।

তারা রান্নাঘরে গিয়ে দেখে, মা রক্তাক্ত অবস্থায় মেঝেতে পড়ে আছেন।

পাসগওয়া থানার এসএইচও রাকেশ কুমার জানিয়েছেন, ‘চায়ে চিনি কম দেওয়া নিয়ে ওই ব্যক্তির সঙ্গে তার স্ত্রীর ঝগড়া শুরু হয়। স্ত্রীকে মারধর করার পর ধারালো ছুরি দিয়ে গলা কেটে দেন ওই ব্যক্তি।

মৃত রেণুর বাবা বদ্রী প্রসাদের অভিযোগের ভিত্তিতে তার স্বামী বাবলুর বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩০২ ধারায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। খুনে ব্যবহৃত অস্ত্র উদ্ধার করা হয়েছে। তার সন্ধানে তল্লাশি চলছে।

তাকে শীঘ্রই গ্রেফতার করা হয়েছে। তার সন্তানরা এই হত্যাকাণ্ডের সাক্ষী। তাদের বয়ান নেওয়া হয়েছে।’

আরো পড়ুন: ভারতে মাটি খুঁড়ে মিলল ‘লা ইলাহা ইল্লাল্লাহ’ খচিত স্বর্ণ মুদ্রা

ভারতে তামিলনাড়ুর প্রত্মতত্ত্ব বিভাগ শিবগঙ্গাই জেলার কালাইয়ার কয়েলের কাছে এলানধাক্কারাইয়ে মাটি খুঁড়ে উদ্ধার করেছে সিরিয় সোনার মুদ্রা। ওই স্বর্ণমুদ্রায় আরবিতে খোদাই করা রয়েছে, ‘লা ইলাহা ইল্লাল্লাহ’ (আল্লাহ্ ছাড়া কোনো উপাস্য নেই)।
মুদ্রাটি ষষ্ঠ শতকের বলে অনুমান করা হচ্ছে। প্রত্মতত্ত্ব বিভাগের এক কর্মী জেমিনি রমেশ বলেছেন, ‘এই মুদ্রা প্রমাণ করে মাদুরাই অঞ্চলে ইসলাম ধর্ম অনেক আগে প্রসার লাভ করেছিল।’ শিক্ষাবিদরা এই এলাকাকে ভাইগাই উপত্যকা সভ্যতার অংশ হিসেবে বর্ণনা করেছেন।

২৩০০ বছর আগের এই সভ্যতার হদিস মেলার পর ২০১৫ সালে এখানে খননকার্য শুরু হয়। মাদুরাইয়ের বাসিন্দা মুহাম্মদ ইউসুফ নামের একজন আইনজীবী বলেছেন, ‘১৪ শতকে মালিক কাফুরের মাদুরাই জয়ের আগেই ইসলাম পৌঁছেছিল এখানে। আরবের সঙ্গে দক্ষিণ ভারতের বাণিজ্যিক সম্পর্ক ছিল আর পান্ড্য রাজত্ব মুক্তার জন্য প্রসিদ্ধ ছিল।’ তার ধারণা, ইসলামের অস্তিত্ব যে এখানে বহু আগে থেকেই ছিল তা খনন চালিয়ে গেলে ক্রমশ প্রকাশিত হবে।

মাদুরাই শহরতলির অদূরে কিঝাড়ি ও শিবগঙ্গাই জেলার সীমান্তে খননকার্য শুরু হয়েছিল চলতি বছরের ১৯ ফেব্রুয়ারি। লকডাউনের আগে এই খননকার্য উদ্বোধন করেছিলেন ওই রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী পালানিসামি। লকডাউনের জেরে কাজ বন্ধ থাকলেও আবার তা চালু হয়েছে। সূত্র : মুসলিম মিরর