ইরানে হামলা হলে কারো নিরাপত্তা থাকবে না: আমেরিকাকে ইরানের হুঁশিয়ারি

ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোহাম্মাদ জাওয়াদ জারিফ তার দেশের সঙ্গে সামরিক সংঘাতের ব্যাপারে আমেরিকাকে হুঁশিয়ার করে দিয়ে বলেছেন,

ইরান আক্রান্ত হলে সবার নিরাপত্তা বিপন্ন হবে। নিউ ইয়র্ক সফররত জারিফ সেখানকার প্রখ্যাত ওয়েবলগ ‘লোবলগ’কে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে এ হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেছেন।

তিনি বলেন, ট্রাম্প প্রশাসনের একটি অংশ ইরানকে পরমাণু সমঝোতা থেকে বেরিয়ে যেতে উসকানি দেয়ার নীতি গ্রহণ করেছে। পাশাপাশি আরেকটি অংশ এর চেয়েও নিকৃষ্ট ঘটনা ঘটানোর পাঁয়তারা করছে।

তারা ইরানের সঙ্গে সামরিক সংঘাতে যেতে চায় যা মধ্যপ্রাচ্যসহ গোটা বিশ্বের শান্তি ও নিরাপত্তার জন্য বিপজ্জনক।

মোহাম্মাদ জাওয়াদ জারিফ আরো বলেন, সৌদি আরব, সংযুক্ত আরব আমিরাত ও ইহুদিবাদী ইসরাইলও ইরানের সঙ্গে আমেরিকার যুদ্ধ বাধিয়ে দিতে চায়। তিনি সতর্ক করে বলেন, সে রকম কিছু হলে মধ্যপ্রাচ্যের কেউ নিরাপদ থাকবে না।

ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী তার দেশের বিরুদ্ধে আমেরিকার একতরফা নিষেধাজ্ঞা আরোপের নীতি ব্যর্থ হবে বলেও উল্লেখ করেন। জারিফ বলেন, আমরা আমাদের প্রতিবেশীদের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক বজায় রাখার নীতি গ্রহণ করেছি।

ইরাক, তুরস্ক, পাকিস্তান, আফগানিস্তান, রাশিয়া, আর্মেনিয়া ও আজারবাইজানের মতো প্রতিবেশী দেশগুলোর পাশাপাশি চীন ও ভারতের মতো আঞ্চলিক শক্তিগুলোর সঙ্গেও আমাদের উষ্ণ বাণিজ্যিক সম্পর্ক বিদ্যমান। কাজেই নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে ইরানকে বিপদে ফেলা যাবে না বলে তিনি মন্তব্য করেন।

সুত্র: পার্সটুডে

আরো পড়ুন: ইরান কখনোই আমেরিকার কাছে মাথানত করবে না: বাকেরি

ইরান কখনোই আমেরিকা ও তার মিত্র দেশগুলোর কাছে মাথানত করবে না। এ কথা বলেছেন দেশটির সশস্ত্র বাহিনীর প্রধান মেজর জেনারেল মোহাম্মাদ বাকেরি। তিনি সোমবার তেহরানে ভারত মহাসাগরীয় দেশগুলোর নৌবাহিনী প্রধানদের সম্মেলনে এ কথা বলেন।

মেজর জেনারেল বাকেরি আরও বলেছেন, ইরান নিজের শক্তি ও সামর্থ্যের ওপর ভর করে প্রতিবেশী দেশগুলোর দিকে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিয়েছে।

তিনি বলেন, দুই মেরু কেন্দ্রিক ব্যবস্থার অবসান হয়েছে এবং প্রাচ্য ও পাশ্চাত্যে নতুন নতুন শক্তির উত্থান ঘটছে। কিন্তু আমেরিকা বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে সেনা মোতায়েন ও শক্তির ভাষা ব্যবহারের মাধ্যমে বিশ্বে বিশৃঙ্খলা ছড়িয়ে দিচ্ছে।

ইরানের সশস্ত্র বাহিনীর প্রধান বলেন, আমেরিকা দায়েশের সহযোগিতায় পশ্চিম এশিয়ার একটা বড় অংশে সংকট সৃষ্টি করেছে। এর ফলে বহু মানুষ নিহত ও বাস্তুহারা হয়েছে।

তিনি বলেন, আমেরিকা কোনো ধরণের আন্তর্জাতিক নীতিমালার তোয়াক্কা করে না। সিরিয়ায় মার্কিন নেতৃত্বাধীন সাম্প্রতিক হামলার মধ্যদিয়ে আবারও এই বাস্তবতা সামনে স্পষ্ট হয়েছে।

মেজর জেনারেল বাকেরি বলেন, ইহুদিবাদী ইসরাইল বিনা বাধায় নিজের পরমাণু অস্ত্রভাণ্ডার সমৃদ্ধ করার পাশাপাশি আন্তর্জাতিক আইন লঙ্ঘন করে প্রতিবেশী দেশগুলোতে আগ্রাসন চালিয়ে যাচ্ছে।

তাতে আমেরিকা কোনো দোষ দেখছে না। কিন্তু সেই আমেরিকাই অন্য দেশগুলোকে বৈধ ও প্রচলিত প্রতিরক্ষা সরঞ্জাম সংগ্রহের ক্ষেত্রে বাধা সৃষ্টি করছে এবং এটাকে অপরাধ হিসেবে গণ্য করছে।