ইসরাইল ভেতর থেকেই ধ্বংস হয়ে যাবে: ইরানের স্পিকার

ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরানের সংসদ স্পিকার মুহাম্মদ বাকের কলিবফ বলেছেন, ইহুদিবাদী ইসরাইল ভেতর থেকেই ধসে পড়ার মতো সঙ্কটের সম্মুখীন। তিনি আজ (বুধবার) তেহরানে নিযুক্ত ফিলিস্তিনের রাষ্ট্রদূত সালাহ যাভাভি’র সঙ্গে বৈঠকে এ কথা বলেন।

কলিবফ আরো বলেন,দখলদার ইসরাইলের অপরাধী প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু তার মন্ত্রিসভা গঠনের জন্য সংকটের সম্মুখীন। এটা তাদের ভেতর থেকে ধসে পড়ার সংকটের প্রমাণ।

ইরানের সংসদ স্পিকার আরও বলেন, ফিলিস্তিন হচ্ছে মুসলিম বিশ্বের প্রধান সমস্যা। ফিলিস্তিনি জনগণের লক্ষ্য-উদ্দেশ্যের প্রতি ইরানের সমর্থন অব্যাহত থাকবে এবং এটি ইরানের মৌলিক নীতি।

এ সময় ফিলিস্তিনের রাষ্ট্রদূত বলেন, ইরানে ইসলামি বিপ্লব সফল হওয়ার পর ইমাম খোমেনী (রহ.) যে পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করে গেছেন তা ইহুদিবাদী ও মার্কিন পরিকল্পনাকে চ্যালেঞ্জের মুখে ঠেলে দিয়েছে।

হজরত ইমাম খোমেনী (রহ.)’র পর হজরত আয়াতুল্লাহ খামেনেয়ীও একইভাবে ফিলিস্তিন মুক্তির জন্য এবং মুসলিম বিশ্বে ঐক্য সৃষ্টিতে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। কিন্তু অবৈধ ইসরাইলের পতন ঠেকাতে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এবং ইহুদিবাদীরা মুসলিম দেশগুলোর মধ্যে ঐক্যের পথে বাধা তৈরি করে যাচ্ছে। সুত্র: পার্সটুডে

সৌদি প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় ও কিং সালমান বিমান ঘাঁটিতে হামলা

ইয়েমেনের হুথি বিদ্রোহীগোষ্ঠী সৌদি আরবের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়, গোয়েন্দা সংস্থার সদর দপ্তর ও কিং সালমান বিমান ঘাঁটিতে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালিয়েছে। দারিদ্রপীড়িত ইয়েমেনের ওপর সৌদি নেতৃত্বাধীন আরব জোট যে বর্বর ও

রক্তক্ষয়ী আগ্রাসন চালিয়ে আসছে তার জবাবে এই হামলা চালানো হয়েছে বলে জানিয়েছে ইয়েমেনের সেনাবাহিনী।

ইয়েমেনি সামরিক বাহিনীর মুখপাত্র ব্রিগেডিয়ার জেনারেল ইয়াহিয়া সারিয়ি জানান, সৌদি আরবের গভীরে হামলার জন্য তারা ব্যালিস্টিক ও পাখাযুক্ত ক্ষেপণাস্ত্র এবং ড্রোন ব্যবহার করেছেন।

জেনারেল সারিয়ি জানান, রাজধানী রিয়াদের আরো কিছু সামরিক ঘাঁটি ও দক্ষিণাঞ্চলীয় নাজরান এবং জিজান প্রদেশের অনেকগুলো অবস্থানে হামলা চালানো হয়েছে।

জেনারেল সারিয়ি জোর দিয়ে বলেন, ইয়েমেনের ওপর সৌদি আরব যে বর্বর আগ্রাসন চালাচ্ছে এবং অন্যায় অবরোধ দিয়ে রেখেছে তার জবাবে আজকের হামলা চালানো হয়। সৌদি আরবের আগ্রাসন বন্ধ এবং অবরোধ অবসান না হওয়া পর্যন্ত এমন হামলা আরো হবে বলে তিনি প্রতিশ্রুতি ব্যক্ত করেন।

সৌদি সরকার ওই হামলার তীব্র নিন্দা জানিয়ে বলেছে, ইয়েমেন থেকে আটটি ড্রোন ও ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্রের সাহায্যে হামলা করা হয়েছে। সৌদি সরকারের বিবৃতিতে আরও বলা হয়েছে, সোমবার রাতে রাজধানী রিয়াদের উত্তরাংশসহ বিভিন্ন এলাকায় হামলার ঘটনা ঘটেছে।

সূত্র- পার্সটুডে, আল জাজিরা

আক্রান্ত হওয়ার পরদিনই করোনামুক্ত হাফিজ!

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি) জানিয়েছে, তাদের ইংল্যান্ড সফরের জন্য ঘোষিত স্কোয়াডের সাত ক্রিকেটার করোনা পজিটিভ। অর্থাৎ আগেরদিন পজিটিভ হওয়া তিন ক্রিকেটারসহ পাকিস্তানের মোট ১০ ক্রিকেটার করোনা আক্রান্ত হয়েছিলেন।

সে দশ ক্রিকেটারের মধ্যে একজন ছিলেন সাবেক অধিনায়ক ও অফস্পিনিং অলরাউন্ডার মোহাম্মদ হাফিজ। তবে তিনি পরদিন অর্থাৎ আজই (বুধবার) করোনা নেগেটিভ প্রমাণিত হলেন। যা তিনি জানিয়েছেন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে।

পিসিবির পক্ষ থেকে করা পরীক্ষার পর নিজের সন্তুষ্টির জন্য ব্যক্তিগতভাবে পুরো পরিবারসহ করোনা পরীক্ষা করিয়েছেন হাফিজ। সেখানে দেখা গেছে পরিবারের সবাই করোনা নেগেটিভ। এই পরীক্ষার রিপোর্ট টুইটারে আপলোড করেছেন তিনি।

যেখানে লিখেছেন, ‘গতকাল (মঙ্গলবার) পিসিবির ফলাফল মোতাবেক করোনা পজিটিভ হওয়ায় আমি নিজের সন্তুষ্টির জন্য পরিবারের সবাইকে নিয়ে ব্যক্তিগতভাবে দ্বিতীয়বার পরীক্ষা করাই। আলহামদুলিল্লাহ্‌। আমি এবং আমার পরিবারের সবার ফলাফল নেগেটিভ এসেছে। আল্লাহ আমাদের সবাইকে নিরাপদ রাখুক।’

মার্কিন নিষেধাজ্ঞা তোয়াক্কা না করে সিরিয়ার সঙ্গে বাণিজ্য অব্যাহত রাখার ঘোষনা জর্ডানের

জর্ডানের প্রধানমন্ত্রী ওমর রাজ্জাজ বলেছেন, সিরিয়ার বিরুদ্ধে আমেরিকার নয়া নিষেধাজ্ঞা দুই দেশের বাণিজ্যিকে লেনদেনের ওপর কোনো প্রভাব ফেলবে না। তিনি আরও বলেছেন, দুই দেশের মৌলিক চাহিদার ভিত্তিতে বাণিজ্যিক লেনদেন হয়ে আসছে।

মার্কিন নিষেধাজ্ঞার পরও এটা চলবে। সিরিয়ার সঙ্গে দ্বিপক্ষীয় বাণিজ্য আরও বাড়ানোর জন্য জর্ডান সুযোগ খুঁজছে বলেও তিনি মন্তব্য করেন। গত ডিসেম্বরে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প সিরিয়ার বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা আরও কঠোর করতে একটি আইনে সই করেছেন।

এই আইন অনুযায়ী যেসব প্রতিষ্ঠান ও ব্যক্তি সিরিয়ার সঙ্গে সহযোগিতা করবে তাদের বিরুদ্ধেই নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা যাবে। এর মাধ্যমে যুদ্ধবিধ্বস্ত সিরিয়াকে আরও কঠিন পরিস্থিতির মুখোমুখি করতে চায় ওয়াশিংটন।

ট্রাম্প চাইছে, মুসলিম দেশ সিরিয়া যাতে কোনো ভাবেই পুনর্গঠন কাজ এগিয়ে নিতে না পারে। ২০১১ সাল থেকে বিদেশি মদদে সিরিয়ায় সহিংসতা ছড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। সুত্র: পার্সটুডে

মেক্সিকোতে বিমান বিধ্বস্ত, নিহত ৬

মেক্সিকোর উত্তরাঞ্চলে পার্বত্য এলাকায় একটি ছোট আকারের বিমান বিধ্বস্ত হয়ে ছয়জন নিহত হয়েছে। মঙ্গলবার কর্তৃপক্ষ একথা জানায়। খবর এএফপি’র।

স্থানীয় রাজ্য প্রসিকিউটর দপ্তর জানায়, জরুরি উদ্ধার কর্মীরা মেক্সিকোর উত্তরাঞ্চলীয় চিহুয়াহুয়া রাজ্যের পার্বত্য এলাকা থেকে পাইলট ও পাঁচ যাত্রীর লাশ উদ্ধার করেছে।

চিহুয়াহুয়া প্রসিকিউটর দপ্তরের এক বিবৃতিতে বলা হয়, রাজ্য তদন্ত সংস্থার কর্মকর্তারা বালেজা অঞ্চলে বিধ্বস্ত এ বিমানের সন্ধান পায়। তারা সেখানে পাইলট ও পাঁচ যাত্রীকে মৃতাবস্থায় দেখতে পায়।

বিমানটি সোমবার কামারগো নগরী থেকে উড্ডয়ন করে এবং ৮শ’ কিলোমিটার দূরে সিনালোয়ার গুয়াসেভে পৌঁছানোর আগে এটি নিখোঁজ হয়।