শুনো বিশ্ব পাকিস্তান ‍আজ নিরাপদ: শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট বোর্ড

যে শ্রীলংকা দিয়ে পাক ক্রিকেটের অবনতি সেই শ্রীলঙ্কাই আবার বলল ‘শুনো বিশ্ব, পাকিস্তান আজ নিরাপদ’সম্প্রিত লংকান ক্রিকেটার রা স্বাগতিক হিসেবে পাকিস্তান সফর করে। আর নির্বিঘ্নেই শেষ করে শ্রীলংকার পাকিস্তান সফর। নিরাপত্তা অযুহাতে দ্বিতীয় সারির দল নিয়ে সেখানে গিয়েছিলেন লংকানরা। তবে কোনো বাধা-বিঘ্ন ছাড়াই সফর শেষ করেছেন তারা।

সফরে বেশ সফলও শ্রীলংকা। ৩ ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজে পাকিস্তানের কাছে ২-০ ব্যবধানে হারে তারা। বৃষ্টির কারণে একটি ওয়ানডে পরিত্যক্ত হয়। তবে টি-টোয়েন্টি হিরো পাকিদের টি-টোয়েন্টি সিরিজে ধবলধোলাই করে প্রতিশোধ নেন সফরকারীরা। লংকা ক্রিকেট ইতিহাসে এটিই তাদের হোয়াইটওয়াশে প্রথম সিরিজ জয়। অকপটে স্বীকার করেছেন লংকান কোচ রুমেশ রত্নায়েক যে, সর্বোপরি পাকিস্তানের আতিথেয়তায় মুগ্ধ শ্রীলংকার ক্রিকেটার ও কোচ স্টাফরা।

তিনি দৃঢ় কণ্ঠে জানিয়েছেন,এ সফর শতভাগ সফল। ভবিষ্যতে অন্য দলকে পাকিস্তানে আসতে এটি অনুঘটকের কাজ করবে। পাকিস্তানের আতিথেয়তায় ভীষণ মুগ্ধ লংকান কোচ বলেন,এখানে এরকম আতিথেয়তা পাওয়া সত্যিই দারুণ ব্যাপার। অনেক দিন পর এমন অভিজ্ঞতা হল। আমাদের জন্য তাদের অনেক পরিশ্রম করতে হয়েছে। নিরাপত্তা ব্যবস্থা ছিল অভাবনীয়। অবশ্য আমাদের কয়েকজন সংশয়ে ছিল।

তবে আমি প্রত্যেকটা মুহূর্ত উপভোগ করেছি। সুসংবাদ এই যে, এখন সবার শংকা কেটে গেছে।আমাদের নজিরবিহীন আতিথেয়তা দেয়ার জন্য আপনাদের ধন্যবাদ। ওয়ানডে সিরিজ হয় করাচিতে। আর টি-টোয়েন্টি সিরিজ গড়ায় লাহোরে । দুই ভেন্যুতেই সমান নিরাপত্তা পেয়েছে শ্রীলংকা। গতকাল বুধবার সবশেষ টি-টোয়েন্টিতে পাকিস্তান ১৩ রানে হারিয়ে সিরিজ জিতেছে তারা।

এরপর আত্মবিশ্বাসী কণ্ঠে রত্নায়েক বলেন,এ সফর গোটা ক্রিকেট বিশ্বের জন্য একটা বার্তা। বিশেষ করে শ্রীলংকার ভবিষ্যৎ সফরের জন্য। খেলার জন্য পাকিস্তান আর অনিরাপদ নয়। খুব নির্বিঘ্নে সিরিজ শেষ হল। আশা করি, এখন এখানে সফরে অন্য দলগুলো উৎসাহিত হবে। পাকিস্তানে ৭টি টেস্ট ও ১৬টি ওয়ানডে খেলার অভিজ্ঞতা আছে রত্নায়েকের।

তাই সেখানকার পরিবেশ সম্পর্কে ভালো ধারণা আছে। সেই ৩০ বছর আগে যা প্রত্যক্ষ করেছেন, এখনও তা পাল্টায়নি বলে মনে করেন তিনি। শ্রীলংকার এ সাবেক খেলোয়াড় বলেন,৩০ বছর আগের মতোই দর্শক উপস্থিতি ছিল,কিছুই পাল্টায়নি।

তাদের হাতে ‘স্বাগতম শ্রীলংকা’ লেখা ব্যানার আমার হৃদয় স্পর্শ করেছে। আমাদের প্রতি তাদের ভালোবাসা ছিল আপ্লুত করার মতো। রত্নায়েকের আশা,অদূর ভবিষ্যতে পাকিস্তান সফরে যাবে শ্রীলংকা। এবার সেখানে টেস্ট খেলবে তারা। অভিজ্ঞ লংকান ক্রিকেটাররা যেন আসতে রাজি হন, সে জন্য তাদের বোঝানোর প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন তিনি