ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করলেন উগান্ডার নারীসহ বিভিন্ন ধর্মের মোট ৪৯ জন!

ইসলাম শান্তির ধর্ম তাই ওমানে বসবাসরত ৪টি দেশের ৪৯ নাগরিক ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেছে। দেশটির মিনিষ্ট্রি অব আওকাফ এণ্ড রিলিজিয়াস অ্যাফেয়ার্স (এমএআরএ) এক বিবৃতিতে এ তথ্য নিশ্চিত করেছে।

এমএআরএ বলছে, এটা তাদের মন্ত্রণালয়ের প্রচেষ্টার ফলে সম্ভব হয়েছে। ইসলাম ও সাংস্কৃতিক বিনিময় বিভাগের দপ্তর ইফতা ইসলামের সংস্কৃতি ছড়িয়ে দিতে মুখ্য ভূমিকা রেখেছে। জানা গেছে, ওমানে বসবাসরত ১৮ জন উগান্ডার নারী, ১১ ফিলিপিনো পুরুষ ও ৩ নারী, শ্রীলঙ্কার ৫ নারী এবং তানজানিয়ার নারী ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেছেন।

এক্ষেত্রে আওয়াফ ও ধর্মীয় বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের ইফতা নামের দপ্তরের ইসলামী ও সাংস্কৃতিক বিনিময় বিভাগের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রয়েছে। ধর্মীয় সচেতনতা বৃদ্ধি, অনুসরণ, এবং নতুন ইসলাম গ্রহণকারীদের বিষয়ে ওই সংস্থাটি কাজ করে থাকে।

আন্তর্জাতিক কোরআন প্রতিযোগিতায় অংশ নিতে দুবাই যাচ্ছেন হাফেজ মুয়াজ

দুবাই অ্যাওয়ার্ড খ্যাত ২৩তম আন্তর্জাতিক হিফজুল কোরআন প্রতিযোগিতা ২০১৯ এ অংশ নিতে দুবাই যাচ্ছেন বাংলাদেশের হাফেজ মুয়াজ মাহমুদ। পবিত্র রমজানে সংযুক্ত আরব আমিরাতের দুবাইতে আন্তর্জাতিক এ প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হবে।

২য় রমজানে শুরু হয়ে এ প্রতিযোগিতা চলবে ১৪ রমজান পর্যন্ত। ১৪ রমজান প্রতিযোগিতার সমাপনী ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠান হবে। আন্তর্জাতিক এ প্রতিযোগিতায় বাংলাদেশের হয়ে প্রতিনিধিত্ব করবেন রাজধানীর মিরপুরস্থ প্রতিষ্ঠান মারকাযু ফয়জিল কুরআন আল ইসলামী ঢাকার ছাত্র হাফেজ মুয়াজ মাহমুদ।

এর আগে প্রতিযোগিতার বাছাইপর্বে দেশের মেধাবী ৩২৭ জন হাফেজে কোরআন অংশগ্রহণ করেন। এরমধ্যে প্রথম স্থান অর্জন করে মুয়াজ মাহমুদ এ প্রতিযোগিতার একমাত্র প্রতিনিধি হিসেবে নির্বাচিত হন। সোমবার সন্ধ্যার ফ্লাইটে হাফেজ মুয়াজ মাহমুদ এবং তার শিক্ষক আন্তর্জাতিক পুরস্কারপ্রাপ্ত হাফেজ আব্দুল্লাহ আল মামুন দুবাইয়ের উদ্দেশে রওয়ানা হবেন।

মারকাযু ফয়জিল কোরআন আল ইসলামী ঢাকার প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক, গুলশান সোসাইটি জামে মসজিদের খতিব মুফতি মুরতাজা হাসান ফয়েজি মাসুম দুবাইতে অনুষ্ঠিতব্য এ আন্তর্জাতিক প্রতিযোগিতায় হাফেজ মুয়াজের সফলতার জন্য দেশবাসীর কাছে দোয়া চেয়েছেন।