ভারি অস্ত্রসহ চীনের ৪০ হাজার সেনা মোতায়েন, উত্তেজনা চরমে

পূর্ব লাদাখ থেকে পুরোপুরি সৈন্য প্রত্যাহার করেনি চীন। নিয়ন্ত্রণরেখায় এখনও চীনের প্রায় ৪০ হাজার সৈন্য অবস্থান করছে।

ভারতের দাবি, মুখে এক আর মনে আরেক নীতি মেনে চলছে বেইজিং। বারবার দ্বিপাক্ষিক বৈঠকে নিয়ন্ত্রণ রেখায় শান্তি স্থাপন ও সৈন্য সরিয়ে নেওয়ার কথা বললেও এখনও পূর্ব লাদাখ সীমান্তে ৪০ হাজারের মতো চীনা সেনা সদস্য রয়েছে।

ভারতের একটি গোপন প্রতিবেদন থেকে এমন তথ্য পাওয়া গেছে। একটি গোয়েন্দা সূত্র থেকে বেশ ভারতীয় গণমাধ্যম জানিয়েছে , গোগরা ও হটস্প্রিং এলাকায় এখনও ভারতীয় সীমানার মধ্যেই অবস্থান করছে চীনা সৈন্যরা।

এমনকি যে প্যাংগং লেক নিয়ে এতো বিতর্ক সেই লেকের ফিঙ্গার ৫ পয়েন্ট থেকে এখনও সরছে না চীনের সৈন্যরা। ফিঙ্গার ৪ থেকে ফিঙ্গার ৮ পর্যন্ত এখনও যেতে পারছেন না ভারতীয় সেনাবাহিনী।

চীনের এই পদক্ষেপ খুব আশ্চর্যের নয় বলেই মনে করছেন ভারতের শীর্ষ সেনা কর্মকর্তারা। তাদের দাবি, চীনকে পাল্টা জবাব দিতে নতুন করে প্রস্তুত নিচ্ছে ভারতও।

অতীত থেকে শিক্ষা নিয়েই ভবিষ্যতের জন্য নিজেদের প্রস্তুত করছে ভারতীয় সেনারা। বর্তমানে সীমান্তের পরিস্থিতি শান্ত থাকলেও চীনের বিষয়ে সতর্ক রয়েছে ভারত।

চীনের সৈন্যদের কথা রাশিয়ায় তৈরি বেশ কিছু যুদ্ধবিমান গোয়া থেকে দেশের উত্তরাঞ্চলে ভারতীয় বিমানঘাঁটিতে সরিয়ে আনা হয়েছে।

আরও সংবাদ

আফগানিস্তানে বিমান হামলায় বেসামরিক নাগরিকসহ নিহত ৪৫

আওয়ার ইসলাম: আফগানিস্তানের হেরাত প্রদেশে নিরাপত্তা বাহিনীর বিমান হামলায় বেসামরিক নাগরিক ও তালেবান সদস্যসহ ৪৫ জন নিহত হয়েছেন। গতকাল বুধবার স্থানীয় কর্মকর্তারা এই হামলার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

আফগানিস্তানের পূর্বাঞ্চলীয় হেরাত প্রদেশের আদ্রাস্কান জেলার গভর্নর আলী আহমাদ ফকির ইয়ার জানান, নিহতদের মধ্যে অন্তত আটজন বেসামরিক নাগরিক রয়েছেন।

তিনি বলেন, খাম জিয়ারাত এলাকায় নিরাপত্তা বাহিনীর বিমান হামলায় এ পর্যন্ত ৪৫ জন নিহত হয়েছেন। নিহতদের মধ্যে তালেবান সদস্যও রয়েছেন।

এই হামলার ঘটনায় তালেবান মুখপাত্র কারী মোহাম্মদ ইউসুফ আহমাদি একটি বিবৃতিতে জানিয়েছেন, হেরাতে অন্তত দুই দফা বিমান হামলা চালানো হয়েছে। এতে ১২ জন আহত হয়েছেন এবং আট বেসামরিক নাগরিক মারা গেছেন। এমন হামলা শত্রুদের বিরুদ্ধে তালেবানদেরকে আবারো অস্ত্র হাতে নিতে বাধ্য করবে বলেও হুঁশিয়ারি দেন কারী মোহাম্মদ ইউসুফ আহমাদি।

আফগান প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, তারা বিমান হামলায় বেসামরিক নাগরিক হতাহতের বিষয়টি তদন্ত করছে।