মা-বাবার হত্যাকারীদের খুন করে ভাইরাল এই তরুণী

তালেবান জঙ্গিদের হাতে খুন হয়েছিল মেয়েটির বাবা-মা। বদলা হিসেবে নিজ হাতে গুলি করে হত্যা করেছেন মা-বাবার সেই খুনিদের। এ যেন হার মানালো সিনেমার গল্পকেও। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও বেশ কয়েকজন তালেবান। গত সপ্তাহে আফগানিস্তানের ঘোর প্রদেশে ঘটেছে এই ঘটনা।

বার্তা সংস্থা এএফপি জানিয়েছে, এই তরুণীর নাম কামার গুল। হঠাৎ করেই তাদের বাড়িতে হামলা চালায় তালেবান জঙ্গিরা। জঙ্গিরা গ্রাম প্রধানগুলের বাবাকে খুঁজছিল। তিনি সরকার সমর্থক ছিলেন। কামার গুলের বাবাকে টেনে হিঁচড়ে নিয়ে যায় তারা।

এসময় কামার গুলের মা বাধা দিতে চাইলে বাড়ির বাইরে উভয়কে হত্যা করে তালেবান জঙ্গিরা। ঘরের ভেতরে থাকা কন্যা গুল আর বসে থাকতে পারেননি। তাতে তুলে নেন অস্ত্র। দু’জন তালেবান জঙ্গিকে মেরে আরও কয়েকজনকে আহত করে উপযুক্ত বদল নেয় সে।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে পুলিশ কর্মকর্তা রহমান মালেকজাদা বলেন, বাড়ির ভেতরে থাকা কামার গুল তাদের পারিবারিক অস্ত্র একে-৪৭ বন্দুক হাতে তুলে নেয়। প্রথমে তার বাবা-মাকে হত্যাকারী দুই তালেবান যোদ্ধাকে হত্যা করে।

এরপর আরও কয়েকজনকে আহত করে। প্রতিশোধ নেওয়ার পর গুলদের বাড়িতে হানা দিতে আসছিল তালেবান সদস্যরা। তবে গ্রামবাসী ও সরকার সমর্থিত বাহিনীর সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে পরাস্ত হয়ে পিছু হটে তারা।

কামার গুল ও তার ছোট ভাইকে আফগানিস্তানের নিরাপত্তাবাহিনীর হেফাজতে নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন ঘোর প্রদেশের গভর্নরের মুখপাত্র মোহামেদ আরেফ আবের। বীরত্ব দেখানোর পর থেকে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে গুলের উচ্ছ্বসিত প্রশংসা চলছে। মাথার কাপড় ও হাতে মেশিনগান নিয়ে তোলা গুলের একটি ছবি গত কিছুদিন ধরে ভাইরাল।

ফিলিস্তিনি জনগণের জন্য আলাদা রাষ্ট্র থাকা উচিত: জোর গলায় বললেন চীনা প্রেসিডেন্ট

চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং জোর দিয়ে বলেছেন, ফিলিস্তিনি জনগণের জন্য আলাদা রাষ্ট্র থাকা উচিত। ইসরায়েল-ফিলিস্তিন সমস্যার দুই রাষ্ট্রভিত্তিক সমাধান হচ্ছে শ্রেষ্ঠ উপায়।

গতকাল সোমবার ফিলিস্তিনি স্বশাসন কর্তৃপক্ষের প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাসের সঙ্গে ফোনালাপে জিনপিং এসব কথা বলেছেন। ফোনালাপে তিনি ফিলিস্তিনি জনগণের প্রতি চীনের পক্ষ থেকে সমর্থন জানান এবং ফিলিস্তিনি শিশুকে মধ্যপ্রাচ্যের কোর ইস্যু বলে তিনি মন্তব্য করেন।

চীনা প্রেসিডেন্ট বলেন, ফিলিস্তিন ইস্যু মধ্যপ্রাচ্যের শান্তি ও স্থিতিশীলতার সঙ্গে যেমন জড়িত তেমনি এটি আন্তর্জাতিক ন্যায় বিচার ও মানবাধিকারের প্রশ্ন। এ ব্যাপারে চীনের অবস্থান সুদৃঢ় এবং স্বচ্ছ।

শি জিনপিং বলেন, চীন মনে করেন দুই রাষ্ট্রভিত্তিক সমাধান হচ্ছে ফিলিস্তিন-ইসরায়েল সঙ্কট নিরসনের সবচেয়ে ভালো উপায় এবং সমমর্যাদার ভিত্তিতে সংলাপের মাধ্যমে এ সংকট সমাধানের পক্ষে বেইজিং।

ইসরায়েল-ফিলিস্তিন সংকট সমাধানের জন্য আন্তর্জাতিক সমাজকে সঠিক ও স্বচ্ছ অবস্থান গ্রহণ এবং এ সঙ্কট সমাধানে প্রচেষ্টা জোরদার করার আহ্বান জানান।

৭ বছরের শিশু এক বছরে কোরআনে হাফেজ!

৭ বছরের শিশু এক বছরে কোরআনে হাফেজ!
মাত্র এক বছরে হাফেজা হয়ে বিস্ময় সৃষ্টি করেছে সাত বছর বয়সী এক শিশু। এই ছোট্ট জীবনের একটি বছরই শিশুটি কাজে লাগিয়েছে কুরআন মুখস্থ করায়। এক বছরের পরিশ্রমে হাফেজ হয়েছে ইরানের ছোট্ট শিশু আবাদি।

ইরানের কোম প্রদেশের মেয়ে কাউসার আসেম আবাদি। সে ‘নুরুল্লাহ’ নামক স্থানীয় একটি মাদরাসায় পবিত্র কোরআনের হিফজ সম্পন্ন করেছে। ২০১৯ সালের এপ্রিল থেকে শুরু করে ২০২০ সালের এপ্রিলে হিফজ শেষ করে। কোমের হাফেজদের মধ্যে কাউসার আসেম আবাদিই সর্বকনিষ্ঠ।

সম্প্রতি স্থানীয় ধর্মবিষয়ক অধিদপ্তরের হিফজ কল্যাণ ফাউন্ডেশন কর্তৃক আয়োজিত কোরআন প্রতিযোগিতায় সবচেয়ে কম বয়সী হাফেজার খেতাব লাভ করে সে। মাদরাসা ‘নুরুল্লাহ’র শিক্ষিকারাও কাউসার আসেম আবাদিকে নিয়ে গর্বিত।

তার এক শিক্ষিকা আবাদির অর্জনে আনন্দ প্রকাশ করে বলেন, ‘আমাদের মেয়ে খুবই প্রতিভাবান, সে অনায়াসেই যেকোনো আয়াত ও পৃষ্ঠা সংখ্যা বলে দিতে পারে। তা ছাড়া কিছু বিষয়ভিত্তিক আয়াত অনুবাদসহ সে মুখস্থ করেছে। আমরা তার আলোকিত ভবিষ্যৎ কামনা করি।’

অমুসলিম দাবি করলেও কোরবানি দিতে চান অপু, শাকিবের কাছে চাইলেন অর্থ

নিজেকে অমুসলিম দাবি করার পরও আসন্ন কোরবানির ঈদে কোরবানি দিতে চান নায়িকা অপু বিশ্বাস। আর এর জন্য তিনি তার সাবেক স্বামী অভিনেতা শাকিব খানের কাছে অর্থ চেয়ে পাঠিয়েছেন বলে জানিয়েছেন শাকিবের ঘনিষ্ট একটি সূত্র।

অপু কোরবানি দেবেন এমন খবর মিডিয়া পাড়ায় চাউর হওয়ায় অনেকের মন্তব্য ‘এই নায়িকা কিছুদিন আগেও বলেছেন, শাকিব তো আমাকে কাগজে কলমে মুসলিম করেননি। তাছাড়া শাকিব যখন আমাকে তালাক দিয়েই দিয়েছেন তখন আমার পরিবার ও সমাজের কারণে আমাকে হিন্দু ধর্মই পালন করতে হচ্ছে।

এ ছাড়াও নিজের জীবনটাকে তো আবার নতুন করে সাজাতে হবে। পরিবার থেকে আমার বিয়ের জন্য পাত্র দেখা হচ্ছে। তাই আমি হিন্দু ধর্মবলম্বী এবং আমার নাম অপু বিশ্বাস- এটিই এখন আমার একমাত্র পরিচয়।’

অপুর এমন মন্তব্যের পর তিনি আবার কোরবানির ঈদ কীভাবে করতে চান?-এ প্রশ্ন এখন সবার। মিডিয়ার অনেকের মতে, গত কয়েক ঈদ এবং পূজায় দেখা গেছে ঈদ আসলে অপু এই উৎসব পালনের জন্য তোড়জোড় শুরু করেন, সাবেক স্বামী শাকিবের কাছে টাকা চেয়ে পাঠান।

আবার দূর্গা পূজা বা অন্য কোনো পূজা এলে পূজা অর্চনায় ব্যস্ত হয়ে পড়েন। মানে ঈদের সময় অপু মুসলমান আর পূজায় হিন্দু। ধর্ম নিয়ে অপুর এমন দ্বৈত আচরণে হতবাক তার দর্শক ভক্তরাও।

২০১৭ সালের নভেম্বরে কাউকে না জানিয়ে পুত্র জয়কে বাসায় কাজের লোকের কাছে তালাবদ্ধ করে রেখে হঠাৎ কলকাতা চলে যান অপু। তখন জয়কে ঘরে তালাবদ্ধ করে রেখে অপুর এই গোপন যাত্রার খবর পেয়ে বিদেশে শুটিংয়ে থাকা শাকিব পুত্রের জন্য উদ্বিগ্ন হয়ে দেশে ছুটে আসেন। আর অপুর এমন আচরণে ক্ষিপ্ত শাকিব তখনই অপুকে ডিভোর্স দেয়ার সিদ্ধান্ত নেন।

এ অবস্থায় অপু দ্রুত কলকাতা থেকে ফিরে এসে ওই বছরের ২০ নভেম্বর একটি পত্রিকার কাছে বলেছিলেন, ‘আমাদের পুত্র জয়ের উন্নত ভবিষ্যতের কথা চিন্তা করে শাকিবের সঙ্গে সংসার করতে চাই। আর অভিনয় নয়, নামাজ, রোজা, হজ নিয়মিত আদায় করে স্বামী সন্তান নিয়ে সুখে সংসার করবো।

কিন্তু মনক্ষুণ্ণ শাকিব অপুর এমন আবদার উড়িয়ে দিয়ে তালাকের পথে হাঁটেন। এদিকে, সম্প্রতি কোরবানির জন্য শাকিবের কাছে অপুর টাকা চাওয়ার বিষয়টি সম্পর্কে জানতে চাইলে বিষয়টি স্বীকার করে শাকিব বলেন, এসব বিষয় নিয়ে কোনো কথা বলতে চাই না।

এগুলো একেবারেই ব্যক্তিগত ব্যাপার। আমি শুধু বলতে চাই, করোনার কারণে দীর্ঘদিন ঘরে থাকতে থাকতে আমি এখন খুব বিরক্ত বোধ করছি। তাই পুত্র জয়কে নিয়ে কোরবানির ঈদের আনন্দ উপভোগ করতে চাই। আমার আশা, ঈদের সময় জয় আমার কাছেই থাকবে