তুর্কি সেনা আহত হলে সবখানে সিরিয়ার সেনাদের ওপর হামলা হবে: এরদোগান

তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়্যেব এরদোগান হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে বলেছেন, তার দেশের সেনারা যদি সিরিয়ার ভেতরে আহত হয় তাহলে যেকোনো জায়গায় সিরিয়ার সেনাদের ওপর হামলা করা হবে। আজ (বুধবার) রাজধানী আঙ্কারায় তুরস্কের ক্ষমতাসীন জাস্টিস অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট পার্টির সংসদীয় দলের সভায় এ হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেন এরদোগান।

তিনি বলেন, “আমাদের সেনারা যদি সামান্যতম আহত হয় অথবা আমাদের পর্যবেক্ষণ টাওয়ার যদি হামলার শিকার হয় তাহলে আমি ঘোষণা করছি যে, সিরিয়ার সরকারি সেনাদেরকে যেখানে পাওয়া যাবে সেখানেই তাদের ওপর হামলা করা হবে।

আমরা এজন্য বিমান অথবা স্থল হামলা করতে দ্বিধা করবো না।” গত কয়েকদিন ধরে সিরিয়ার উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলীয় প্রদেশ ইদলিবের বেশ কয়েকটি জায়গায় তুর্কি সমর্থিত সন্ত্রাসী গোষ্ঠীর বিরুদ্ধে সিরিয়ার সেনা ও তাদের মিত্ররা বিজয় অর্জন করেছে।

এলাকটি তুরস্কের দক্ষিণ সীমান্তের কাছে। সিরিয়ার সেনাদের হামলায় সম্প্রতি বেশ কয়েকজন তুর্কি সেনা হতাহত হয়েছে। সিরিয় সেনাদের হমলায় নিহত তুর্কি সেনাদের কফিন বহন করা হচ্ছে।

২০১৮ সালে ইরান এবং রাশিয়ার মধ্যস্থতায় কৃষ্ণসাগর উপকূলবর্তী সোচি শহরে যে সহযোগিতা চুক্তি হয়েছিল তাতে খুব সীমিত সংখ্যক তুর্কি সেনাকে তুরস্কের সীমান্তবর্তী সিরিয়ার ভূখণ্ডের নিরাপদ অঞ্চলের পর্যবেক্ষণ টাওয়ারে মোতায়েন করার অনুমতি দেয়া হয়েছিল।

কিন্তু সম্প্রতি সিরিয়া সরকারের আপত্তি উপেক্ষা করে তুরস্ক ওই এলাকায় বাড়তি সেনা পাঠিয়েছে। ইদলিবের এসব এলাকা থেকে তুর্কি সর্মথিত সন্ত্রাসীরা বেসামরিক লক্ষ্যবস্তুতে হামলা চালিয়ে আসছে। জবাবে সিরিয়ার সেনারা ওই অঞ্চলে রাষ্ট্রীয় সার্বভৌমত্ব প্রতিষ্ঠার অভিযান শুরু করেছে