স্বাধীন ভারতে প্রথম সন্ত্রাসবাদী হিন্দু, কমল হাসানের বক্তব্যকে সমর্থন আসাদুদ্দিন ওয়াইসির

স্বাধীন ভারতের প্রথম সন্ত্রাসবাদী একজন হিন্দু৷’ অভিনেতা কমল হাসানের মন্তব্যে তৈরি হয় বিতর্ক৷ প্রতিবাদে সরব হয় গেরুয়া শিবির৷ সেই বিতর্কের মাঝেই দক্ষিণী অভিনেতা ও মাক্কাল নিধি মিয়ামের প্রধানের পাশেই দাঁড়ালেন এআইএমআইএম নেতা আসাদুদ্দিন ওয়াইসি৷

এআইএমআইএম প্রধানের মতে, “গান্ধীর হত্যাকারীকে জঙ্গি ছাড়া আর কি বা বলা যায়?” বিজেপিকে কটাক্ষ করে তিনি বলেন, ‘‘যাঁরা জাতির জনকের হত্যা ভুলে গিয়েছেন, তাঁরা তাঁকে শ্রদ্ধা করে না।

যারা মহাত্মা গান্ধীর হত্যার সঙ্গে যুক্ত ছিল, তারা সকলেই জঙ্গি৷’’ রবিবার তামিলনাড়ুর আভারুকুরিচি বিধানসভা উপনির্বাচনের প্রচার করেন কমল হাসান৷ সেখানেই তিনি বিতর্কিত মন্তব্যটি করে বসেন৷ বলেন, ‘‘স্বাধীন ভারতের প্রথম সন্ত্রাসবাদী একজন হিন্দু৷

তার নাম হল নাথুরাম গডসে৷’’ পরে সভায় তিনি বলেন, ‘‘এখানে মুসলিম ভোট বেশি৷ তাই মনে হতেই পারে আমি ভোটের জন্য একথা বলছি৷ কিন্তু একেবারেই তা নয়৷ আমি এটা মহত্মা গান্ধীর মূর্তির সামনে বলছি।’’ দাবি করেন অভিনেতা থেকে নেতা হওয়া কমল হাসান৷ এদিকে ‘স্বাধীন ভারতের প্রথম হিন্দু সন্ত্রাসবাদী গডসে’ মন্তব্য করে বিপাকে অভিনেতা কমল হাসান৷

হিন্দু ভাবাবেগে আঘাত করেছেন এই অভিযোগ উঠেছে তাঁর বিরুদ্ধে৷ তাই মঙ্গলবার দিল্লির পাতিয়ালা হাউস কোর্টে মাক্কাল নিধি মইয়াম দলের নেতার বিরুদ্ধে ফৌজদারি ধারায় অভিযোগ দায়ের করা হয়৷ যদিও সেই মামলা গৃহীত হয়নি, মন্তব্যের স্থান দিল্লি নয় বলে।

ফিলিস্তিনের গাজা থেকে প্রতিদিন ১,০০০ ক্ষেপণাস্ত্র ছুটে আসার আতঙ্কে ইসরাইল।

ফিলিস্তিনের গাজা উপত্যকা থেকে প্রতিদিন ১০০০ ক্ষেপণাস্ত্র ছুটে আসতে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেছে ইসরাইল।সোমবার এ খবর জানিয়েছে ইরানি সংবাদ মাধ্যম পার্সট্যুডে। ইসরাইলি ওয়েব সাইট ‘ওয়ালা’ জানিয়েছে,ইসরাইল কর্মকর্তাদের আশঙ্কা অবরুদ্ধ গাজা থেকে প্রতিদিন ইসরাইলের দিকে এক হাজার ক্ষেপণাস্ত্র ছুটে আসতে পারে।

শুধু তাই নয় ফিলিস্তিনি প্রতিরোধ সংগঠনগুলো ক্ষেপণাস্ত্র শক্তির দিক থেকে লেবাননের হিজবুল্লাহর পর্যায়ে পৌঁছে যাচ্ছে ধারণা তাদের। ইসরাইলি সেনাবাহিনীরি একজন শীর্ষ কর্মকর্তা মেজর জেনারেল হেরযি হালেভি আশঙ্ক প্রকাশ করে বলেছেন,

ফিলিস্তিনের সাথে নতুন কোনো যুদ্ধ শুরু হলে গাজার হামাস ও ইসলামি জিহাদের পক্ষ থেকে প্রতিদিন এক হাজার ক্ষেপণাস্ত্র তাদের দিকে ছুটে আসবে।এছাড়া গাজা থেকে ট্যাংক বিধ্বংসী ক্ষেপণাস্ত্র, ড্রোনও আসতে পারে।