হায়া সোফিয়ার জুমার নামাজে অংশ নেবে প্রবাসী বাংলাদেশিরাও

দীর্ঘ ৮৬ বছর পর শুক্রবার তুরস্কের ইস্তাম্বুলের হায়া সোফিয়ার নামাজ আদায় করবেন মুসল্লিরা। এ উপলক্ষে সব প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে। নামাজে অংশ নেবেন, তুর্কি প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইপ এরদোয়ানসহ দেশটির গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিরা। থাকবেন প্রবাসী বাংলাদেশিরাও।

জুমার নামাজের মধ্য দিয়েই জাদুঘর থেকে আবার মসজিদ হিসেবে যাত্রা শুরু করবে ইস্তাম্বুলের ঐতিহ্যবাহী হায়া সোফিয়া।

ষষ্ঠ শতাব্দীতে বাইজেন্টাইন আমলে নির্মিত এই স্থাপনায় নামাজ পড়ার সুযোগ পাবেন বাংলাদেশিরাও। এরই মধ্যে বিভিন্ন শহর থেকে ইস্তাম্বুলে জড়ো হয়েছেন তারা। কড়া নিরাপত্তার মধ্যেও প্রস্তুতি দেখতে তারা মসজিদটির সামনে উপস্থিত হন।

আরো পড়ুনঃ জুমার নামাজের মধ্যদিয়ে মসজিদে ফিরছে হায়া সোফিয়া

জুমার নামাজে তুর্কি প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইপ এরদোয়ানসহ দেশটির শীর্ষস্থানীয় ব্যক্তিবর্গ অংশ নেবেন। পশ্চিমা চাপ উপেক্ষা করে শেষ পর্যন্ত হায়া সোফিয়াকে মসজিদে রূপান্তরিত করতে পারায় বেশ খুশি তুর্কিরা।

৫৩০ সালে নির্মাণের পর ৯১৬ বছর সেখানে প্রাচীনপন্থি ও রোমান ক্যাথলিক খ্রিস্টানরা উপাসনা করেন। ১৪৫৩ সালে, অটোমান সুলতান মুহাম্মদ ফতেহ তৎকালীন ইস্তাম্বুল দখলে নিলে, খ্রিস্টান প্রতিকৃতিগুলো কুরআনের আয়াতে ঢেকে স্থাপনাটিকে মসজিদে রূপান্তরিত করেন।

টানা ৪শ’ ৮১ বছর নামাজের পর কামাল আতাতুর্কের সময় ১৯৩৪ সালে এটিকে জাদুঘরে রূপান্তরিত করা হয়। গেলো ১০ই জুলাই উচ্চ আদালতের রায়ে ফের মসজিদ হিসেবে পরিচিতি পায় নান্দনিক সৌন্দর্যের এই নিদর্শনটি।