ভারতকে ‘শিক্ষা দিতেই’ চীন হামলা করেছিল

ভারতকে ‘শিক্ষা দিতেই’ চীন হামলা করেছিল
১৫ জুন রাতে ভারত-চীনের মধ্যে প্রাণঘাতী সংঘর্ষ কেন হয়েছিল এই প্রশ্নের উত্তর খুঁজতে মার্কিন অনুসন্ধানে বেরিয়ে এসেছে বিস্ফোরক তথ্য।

চীনের পিপলস লিবারেশন আর্মি (পিএলএ)-র জেনারেল পর্যায়ের এক আধিকারিক ভারতীয় বাহিনীর উপর আক্রমণের নির্দেশ দিয়েছিলেন বলে আমেরিকার একটি গোয়েন্দা পর্যবেক্ষণ রিপোর্টের সূত্রে খবর মিলেছে।

ভারতকে ‘শিক্ষা’ দিতেই হামলার নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল, উল্লেখ করা হয়েছে রিপোর্টে।

পূর্ব লাদাখের গালওয়ান উপত্যকাসহ ওই এলাকায় ভারত-চীন সীমান্তে প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখায় নিরাপত্তার দায়িত্বে রয়েছে পিএলএ-র ওয়েস্টার্ন থিয়েটার কমান্ড। তার মাথায় রয়েছেন জেনারেল ঝাও জোংকি।

এ ছাড়া আরও কয়েকজন অবসরপ্রাপ্ত সেনা আধিকারিকও ওয়েস্টার্ন থিয়েটার কমান্ডের বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেন। শি জিনপিং প্রশাসনই তাদের নিয়োগ করে।

মার্কিন ওই গোয়েন্দা রিপোর্টে বলা হয়েছে, এই সেনা আধিকারিকরা মিলেই ভারতীয় সেনার উপর আক্রমণের সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন এবং নিচু স্তরের বাহিনীকে সেই নির্দেশ দিয়েছিলেন।

মার্কিন গোয়েন্দাদের ওই রিপোর্টে বলা হয়েছে, প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং সিদ্ধান্তের বিষয়ে জানতেন কিনা বিষয়টি স্পষ্ট নয়।

তবে চীনের বিভিন্ন সামরিক সিদ্ধান্তের বিষয়ে ওয়াকিবহাল কূটনৈতিক শিবিরের ব্যাখ্যা, জিনপিংয়ের অজান্তে সেনাবাহিনী স্বতন্ত্রভাবে কোনও সিদ্ধান্ত নেবে, এমনটা হওয়া কার্যত সম্ভব নয়। বরং চীনা প্রেসিডেন্টের সবুজ সঙ্কেত ছিল।

মে মাসের গোড়ার দিকে গালওয়ান উপত্যকায় প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখায় সেনা মোতায়েন শুরু করে চীনা বাহিনী। পাল্টা সেনা ও রসদ মজুত করে ভারতও। ফলে সীমান্তে উত্তেজনা বাড়তে থাকে। কিন্তু তার আগে থেকেই আমেরিকাসহ একাধিক দেশের উপর অসন্তোষ প্রকাশ করেছিল চীনা বাহিনী।

মার্কিন সংবাদ মাধ্যম ‘ইউএস নিউজ’-এ খবর প্রকাশিত হয়েছিল যে, জেনারেল ঝাও জোংকি মনে করেন, আমেরিকা ও তার সহযোগী ভারতসহ নানা দেশ তাদের শোষণ করে।

আরো পড়ুন: মহামারীতে মুসলিম বিশ্বে চিকিৎসা সহায়তায় তৃতীয় স্থানে তুরস্ক !

পররাষ্ট্রনীতিতে উদ্যোক্তা এবং মানবিক উপলব্ধির প্রতিফলন ঘটিয়ে বিশ্বের তৃতীয় বৃহত্তম চিকিৎসা সহায়তা প্রদানকারী দেশ এখন তুরস্ক। সোমবার দেশটির উপ-পররাষ্ট্রমন্ত্রী ইয়াভুজ সেলিম কিরণ এই মন্তব্য করেছেন।

চতুর্থ ব্রাসেলস সম্মেলনে করোনাভাইরাসের আঞ্চলিক দৃষ্টিভঙ্গি নিয়ে অনুষ্ঠিত একটি অধিবেশনে ভিডিও লিঙ্কের মাধ্যমে যুক্ত হয়ে সেলিম কিরণ বলেন, করোনাভাইরাস মাহমারীর এই সময়ে বিশ্বব্যাপী ১৩১টি দেশকে সহায়তা করেছে তুরস্ক। তিনি বলেন, তুরস্ক শরণার্থী রক্ষা করার পাশাপাশি আন্তর্জাতিক সহায়তার অবদান রাখার দ্বৈত চ্যালেঞ্জের সম্মুখীন হচ্ছে।

মহামারীর বিরুদ্ধে লড়াইয়ে তুরস্কের সাফল্যের উপর জোর দিয়ে তিনি বলেন, আমরা শরণার্থীসহ সকলকে বিনামূল্যে স্বাস্থ্যসেবা সরবরাহ করেছি। এটি আমাদের মহামারীর প্রাদুর্ভাব নিয়ন্ত্রণ করতে সাহায্য করেছে। তবে আন্তর্জাতিক সংহতি ছাড়া এ মহামারীর বিরুদ্ধে বৈশ্বিক সাফল্য অর্জন সম্ভব নয়।

শরণার্থীদের নিয়ে তিনি বলেন, দেশে অবস্থিত শরণার্থীদের প্রতি অমানবিক আচরণ করা উচিত নয়। এ পরিস্থিতিতে তাদের ফেরত পাঠানোও অনুচিত। গত ডিসেম্বরে চীনে প্রথম করোনা প্রাদুর্ভাবের পর যুক্তরাষ্ট্রের জন হপকিনস বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিসংখ্যান অনুসারে, বিশ্বব্যাপী কোভিড-১৯’এ মৃত্যুর সংখ্যা চার লাখ ৬৯ হাজার।

উত্তর-পশ্চিম সিরিয়ার যুদ্ধে ক্ষতিগ্রস্থ ইদলিবের বাস্তুচ্যুত মানুষদের বিষয়ে সেলিম কিরণ বলেন, আন্তর্জাতিক মানবিক সহায়তাই তাদের বেঁচে থাকার একমাত্র নিশ্চয়তা। তিনি আরো বলেন, শরণার্থী সঙ্কট আমাদের সবার জন্য একটি সাধারণ সমস্যা বিবেচনা করে একসঙ্গে কাজ করা উচিত।

তিনি ইদলিবে তুরস্ক ও জার্মানি সমর্থিত অর্ধস্থায়ী আশ্রয়কেন্দ্রে সহায়তার জন্য আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে আহ্বান জানিয়েছেন। প্রায় ৪০ লাখ শরণার্থী নিয়ন্ত্রণের ক্ষেত্রে বিশ্বে অন্য দেশগুলোর তুলনায় তুরস্ক প্রথম অবস্থানে রয়েছে। তুরস্কে অবস্থানরত বেশিরভাগ শরনার্থী সিরিয়ান৷

সূত্র : ইয়েনি সাফাক

আরো পড়ুন-মাস্ক না পরায় বুলগেরিয়ার প্রধানমন্ত্রীকে জরিমানা করল স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়

করোনাভাইরাস মহামারিতে সুরক্ষামূলক ফেস মাস্ক না পরার কারণে বুলগেরিয়ার প্রধানমন্ত্রী বয়কো বোরিসোভকে ১৭৪ মার্কিন ডলার জরিমানা করছে দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়। হাজার বছরের ঐতিহ্যবাহী পুরোনো একটি গির্জা পরিদর্শনে গিয়ে মাস্ক পরার বিধান না মানায় এই জরিমানা গুণতে হচ্ছে তাকে বলে মঙ্গলবার মন্ত্রণালয় জানিয়েছে।

এর আগে, গত সপ্তাহে বলকান অঞ্চলের এই দেশটিতে করোনাভাইরাসের রেকর্ড সংক্রমণের পর সোমবার বুলগেরিয়ানদেরকে সব ধরনের ঘরোয়া অনুষ্ঠানে পুনরায় মাস্ক পরার নির্দেশ দেন দেশটির স্বাস্থ্যমন্ত্রী কিরিল আনানিয়েভ।

বার্তাসংস্থা রয়টার্সের কাছে পাঠানো এক ই-মেইলে মন্ত্রী কিরিল বলেছেন, রিলা মোনাসটারি গির্জায় সুরক্ষা মাস্ক ছাড়া যারা প্রধানমন্ত্রীর সফরসঙ্গী হয়েছিলেন তাদের সবাইকে জরিমানা করা হবে।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী বয়কো বোরিসোভ ছাড়াও সাংবাদিক, আলোকচিত্রীসহ যারা ক্যামেরা নিয়ে গির্জায় তার সফরসঙ্গী ছিলেন তাদেরকেও জরিমানা গুণতে হবে। তবে গির্জার ভেতরে মাস্ক না পরা পাদ্রীদের জরিমানা হবে কিনা সেব্যাপারে কিছু জানানো হয়নি।

দেশটির রাজধানী সোফিয়ার দক্ষিণের রিলা পার্বত্য অঞ্চলের হাজার বছরের পুরনো ইস্টার্ন অর্থোডক্স রিলা মোনাসটারি গির্জা পর্যটকদের অন্যতম আকর্ষণীয় স্থান।

কঠোর লকডাউন এবং মাস্ক পরার বাধ্যতামূলক বিধি-বিধানের কারণে বুলগেরিয়ার করোনা পরিস্থিতি এখনও অনেক ভালো রয়েছে। দেশটিতে এখন পর্যন্ত মাত্র ৩ হাজার ৯৮৪ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন এবং মারা গেছেন ২০৭ জন। কিন্তু গত সপ্তাহে বলকান এই রাষ্ট্রে নতুন করে অন্তত ৬০৬ জন করোনায় সংক্রমিত হন।

গত বছরের ডিসেম্বরে চীনের উহান থেকে বিশ্বের দুই শতাধিক দেশে ছড়িয়েছে প্রাণঘাতী এই ভাইরাস। প্রথম দিকে ইউরোপ এবং আমেরিকায় ব্যাপক তাণ্ডব চালালেও বর্তমানে এশিয়া, উত্তর আমেরিকা এবং আফ্রিকা হয়ে উঠছে ভাইরাসটির উপকেন্দ্র। অতীতে সংক্রমণের দৈনিক সব রেকর্ড ভেঙে প্রত্যেকদিন নতুন রেকর্ড গড়ছে।

ওয়ার্ল্ডওমিটার বলছে, গত কয়েকদিন ধরে গড়ে এক লাখের বেশি মানুষ করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। গত ২৪ ঘণ্টায় বিশ্বে এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন এক লাখ ৩৯ হাজার ৬০৭ জন। তার আগের দিন আক্রান্ত হয়েছেন এক লাখ ৩০ হাজার মানুষ। তবে এখন পর্যন্ত একদিনে সর্বোচ্চ এক লাখ ৮২ হাজার ২০২ জন আক্রান্ত হয়েছে গত ১৯ জুন।

নতুন ও অপ্রতিরোধ গতিতে বিস্তার ঘটাতে থাকা করোনায় বিশ্বজুড়ে আক্রান্তের সংখ্যাও প্রায় কোটি (৯২ লাখ ২৮ হাজারের বেশি) ছুঁতে চলেছে। এই ভাইরাসে সংক্রমিত হওয়ার পর মারা গেছেন ৪ লাখ ৭৫ হাজারের বেশি।