জাকির নায়েককে ফেরত চায় ভারত!

ইসলামি স্কলার জাকির নায়েককে মালয়েশিয়ার কাছে ফেরত চেয়েছে ভারত। তার বিরুদ্ধে সবশেষ অভিযোগ হলো, ফেব্রুয়ারির রায়টে ইন্ধনদাতা এক ব্যক্তির সঙ্গে তিনি দেখা করেছেন৷

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম দ্য কুইন্ট বুধবার প্রকাশিত প্রতিবেদনে পুলিশের একটি আবেদনের ভিত্তিতে বলেছে, iখালিদ সাইফি নামের একজনের সঙ্গে গত ফেব্রুয়ারিতে দিল্লি রায়টের বাইরে সাক্ষাৎ করেছিলেন৷ সাইফি তার এজেন্ডা ছড়িয়ে দিতে নায়েকের সহযোগিতা চেয়েছিলেন৷ ১৫ জুন এই আবেদন দাখিল করে পুলিশ৷

এর আগে গত ১৪ মে ভারত নায়েককে মালয়শিয়ার কাছ থেকে ফেরত চায়৷ রক্ষণশীল এই ভারতীয় ইসলাম প্রচারক তিন বছরেরও বেশি সময় ধরে দক্ষিণপূর্ব এশিয়ার দেশটিতে নির্বাসিত আছেন৷ সেখানে তার স্থায়ীভাবে থাকার অনুমতি রয়েছে৷

জাকির নায়েকের বিরুদ্ধে বেশ কিছু অভিযোগ রয়েছে৷ সবচেয়ে বড় অভিযোগটি iপ্রায় আড়াইশ কোটি টাকার মানি লন্ডারিংয়ের৷

এছাড়া নানা সময়ে তার বিরুদ্ধে উস্কানিমূলক কথা বলার অভিযোগ রয়েছে৷ তবে সব অভিযোগই অস্বীকার করে এসেছেন তিনি৷

২০১৬ সালের জুলাই মাসে ঢাকায় হলি আর্টিজানের ঘটনায় হামলাকারীদের দু’জন নিব্রাস ইসলাম ও রোহান ইমতিয়াজ তার বক্তব্যের দ্বারা প্রভাবিত ছিল বলে অভিযোগ রয়েছে৷ তবে এই অভিযোগও তিনি বরাবরই অস্বীকার করে আসছেন৷

এ ঘটনার পর তার প্রতি আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের নজর পড়ে৷ সে বছরই ভারত ও বাংলাদেশে তার মালিকানাধীন পিস টিভির সম্প্রচার বন্ধ করে দেয়া হয়৷ i

এরপরপরই তার বিরুদ্ধে আইনের অমান্য করার অভিযোগ আনা হয়৷ ভারতীয় কাউন্টারটেররিজম এজেন্সি নায়েকের বিরুদ্ধে ধর্মীয় বিদ্বেষ ছড়ানোর অভিযোগ আনে৷ জাকির পালিয়ে যান মালয়শিয়ায়৷

সুন্নি ইসলামের সালাফি মতবাদের প্রচারক জাকির নায়েক৷ তিনি ইসলামিক রিসার্চ ফাউন্ডেশন (আইআরএফ)-এর প্রধান৷